শ্রীলঙ্কায় এইডস গুজবে ছাঁটাই শিশু পেল নতুন ‘স্কুল’

sisu
সমাজের কথা ডেস্ক॥ শ্রীলঙ্কায় এইডসে আক্রান্ত গুজবে স্কুল থেকে ছাঁটাই হওয়া ছয় বছর বয়সী এক শিক্ষার্থীর জন্য নতুন ‘স্কুল’ পাওয়া গেছে বলে দেশটির সরকার জানিয়েছে। বিবিসি বলছে, দেশটির শিক্ষামন্ত্রী আকিলা বিরাজ কারিয়াওয়াসাম বিবিসিকে জানান, একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠান ছয় বছর বয়সী ওই শিশুর স্কুলে পড়ার খরচ যোগাবে।
ওই প্রতিষ্ঠান শিশুটির মাকে একটি নতুন বাড়িও দেবে বলে জানান তিনি।
ছয় বছর বয়সী ওই শিক্ষার্থী এইডস আক্রান্ত নয় এ সংক্রান্ত সনদপত্র থাকার পরও গেল মাসে অভিভাবকেরা কুরুনেগেলা স্কুলে তাদের সন্তানদেরকে পাঠানো বন্ধ করে দেয়।
ছয় বছর বয়সী ওই শিশুটির মা চানদানি ডি সইসা বিবিসি’কে বলেন, তার স্বামী অসুস্থ হয়ে মারা গেছেন। কে বা কারা গুজব ছড়ায় তার এইডস হয়েছিল।
“আমার স্বামীর এইডস হওয়ার খবর সম্পূর্ণ মিথ্যা। আমি কয়েকদিন ধরে আমার সন্তানের জন্য একটি স্কুল খুঁজে বের করার চেষ্টা করছি। কিন্তু এইডস আতঙ্কে কোনও স্কুল তাকে ভর্তি করতে রাজি হচ্ছে না।”
“আমি এর প্রতিবাদ করেছি। কিন্তু তাতে কিছুই হয়নি। এমনকি আমার কাজ পেতেও অনেক সমস্যা হচ্ছে।”
ফেব্রুয়ারি মাসের শুরুতে বিবিসি সিংহলিতে এ খবর প্রচার পাওয়ার পর শিক্ষা ও মানবাধিকার কর্মীদের চাপে কুরুনেগেলা স্কুল কর্তৃপক্ষ ওই শিশুটিকে ভর্তি করতে বাধ্য হয়।
কিন্তু এবার আপত্তি জানায় স্কুলটির বাকি অভিভাবকরা। তারা ছেলেকে সরিয়ে নেওয়ার জন্য চানদানিকে চাপ দিতে থাকে।
যদিও চানদানির কাছে তিনি নিজে বা তার সন্তান এইডস আক্রান্ত নয় এমন সনদপত্র রয়েছে।

চানদানি বলেন, “সে ক্লাসে যায় এবং অন্য শিশুদের সঙ্গে খেলা করে। কিন্তু তারপরই হঠাৎ করে বাকি অভিভাবকরা এসে তাদের সন্তানদের নিয়ে চলে যায়।”
২ কোটি ১০ লাখেরও বেশি মানুষের দেশ শ্রীলঙ্কায় গেল বছরের হিসাব অনুযায়ী ৩ হাজার ২শ’ পূর্ণ বয়স্ক ও ১০০ শিশু এইডসে আক্রান্ত।

শেয়ার