সাইবার আক্রমনের ঝুঁকিতে ব্যাংকিং খাত

Bangladesh Bank
সমাজের কথা ডেস্ক॥ বাংলাদেশে আর্থিক ব্যবস্থায় ধারাবাহিক সাইবার আক্রমণ হচ্ছে জানিয়ে ঝুঁকি এড়াতে ব্যাংকগুলোকে বেশ কয়েকটি নির্দেশনা দিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।
বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ ব্যাংকের এক সার্কুলারে নির্দেশনাগুলো উল্লেখ করে অবিলম্বে সেগুলো বাস্তবায়ন করতে বলা হয়।
‘যথেষ্ট প্রস্তুতি না থাকলে সাইবার আক্রমণ বাংলাদেশের জন্য আর্থিক ক্ষতির কারণ এবং মর্যাদাহানিকর হতে পারে’- বলে এতে সতর্ক করা হয়েছে।
কেন্দ্রীয় ব্যাংকের নির্দেশনার মধ্যে প্রতিটি ব্যাংকের পরিচালনা পর্ষদের তত্ত্বাবধানে সাইবার নিরাপত্তা গভর্নেন্স, পরিপূর্ণ সাইবার নিরাপত্তা ঝুঁকি মূল্যায়ন, প্রযুক্তিগত দুর্বলতা মূল্যায়ন এবং আপদকালীন ব্যবস্থাপনা কার্যক্রম ঠিক করতে বলা হয়েছে।
যে কোনো সাইবার আক্রমণ মোকাবেলার পরিকল্পনা; তৃতীয় পক্ষের মাধ্যমে গৃহীত সেবার ঝুঁকি মোকাবেলার পরিকল্পনা; সব কর্মকর্তা-কর্মচারীকে সাইবার নিরাপত্তা বিষয়ক প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা; তথ্য- প্রযুক্তির মাধ্যমে লেনদেন বিষয়ে গণসচেতনতা বাড়াতে উদ্যোগ; পুরো ব্যবস্থা সার্বক্ষণিক পর্যবেক্ষণের জন্য তথ্য নিরাপত্তা কেন্দ্র স্থাপন করতে বলেছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।
এছাড়া ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমে সেবা দিতে পিসিআই-ডিএসএস সনদ গ্রহণ, চিপ ও পিন ভিত্তিক কার্ড ইস্যু ও এককালীন পাসওয়ার্ড দেওয়ার উদ্যোগ নিতে বলা হয়েছে।
অন্তত তিন মাস অন্তর সব পেরিমিটার ও কোর ডিভাইস, ওয়েব সার্ভার এবং মিশন ক্রিটিক্যাল সার্ভারের লগ সংগ্রহ ও সংরক্ষণ করতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।
গত ফেব্রুয়ারির দ্বিতীয় সপ্তাহে তিনটি বেসরকারি ব্যাংকের ছয়টি বুথে ‘স্কিমিং ডিভাইস’ বসিয়ে তথ্য চুরির পর এটিএম কার্ড ক্লোন করে গ্রাহকের অজান্তে টাকা হাতিয়ে নেওয়ার ঘটনা প্রকাশিত হলে তোলপাড় সৃষ্টি হয়।
পরে তদন্তে নেমে এটিএম বুথের সিসিটিভি ফুটেজ দেখে এক বিদেশি নাগরিক ও তিন ব্যাংক কর্মকর্তাকে গ্রেপ্তার করে গোয়েন্দা পুলিশ।

শেয়ার