শোকাহত পরিবেশে হাসিনা চাকলাদারের দাফন সম্পন্ন ॥ জানাজায় হাজারো মানুষের অংশগ্রহণ, দোয়া কামনা

jana
নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ বিশিষ্ট সামাজিক, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব আব্দুল হামিদ চাকলাদার ইদুল ও যশোর জেলা যুবলীগ নেতা তৌহিদ চাকলাদার ফন্টুর মাতা এবং জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শাহীন চাকলাদারের চাচী হাসিনা চাকলাদারের দাফন শোকাহত পরিবেশে সম্পন্ন হয়েছে। শহরের কাজীপাড়া কাঁঠালতলা ঈদগাহে গতকাল জোহরবাদ মরহুমার নামাজে জানাজা শেষে কারবালা কবরস্থানে তার দাফন সম্পন্ন হয়েছে। পরে আজ পারিবারিক উদ্যোগে বাদ আসর স্থানীয় মসজিদে দোয়া অনুষ্ঠান হবে। এতে সকলকে উপস্থিত থাকার জন্য অনুরোধ করেছেন যশোর জেলা যুবলীগ নেতা তৌহিদ চাকলাদার ফন্টু।
প্রসঙ্গত, বুধবার সন্ধ্যা ৬ টার দিকে শহরের দড়াটানা প্রাইভেট হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বার্ধক্যজনিত কারণে তিনি ইন্তেকাল করেন। গতকাল তার জানাজা শেষে দাফন সম্পন্ন হয়। জানাজায় জেলা ও জেলার বাইরে থেকে বিভিন্ন শ্রেণিপেশার হাজার হাজার মানুষ অংশ নেন। উল্লেখযোগ্যরা হলেন, যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. আব্দুস সাত্তার, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শহিদুল ইসলাম মিলন, সাধারণ সম্পাদক শাহীন চাকলাদার, জেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক পৌর মেয়র জহিরুল ইসলাম চাকলাদার রেন্টু, জেলা জাসদের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা রবিউল আলম, জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক ইয়াকুব কবীর, ব্যবসায়ী নেতা হুমায়ুন কবীর কবু, জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আলী রায়হান, সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক এসএম আফজাল হোসেন, চৌগাছা উপজেলা চেয়ারম্যান এসএম হাবিবুর রহমান, ঝিকরগাছা উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সাবেক উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মনিরুল ইসলাম, প্রেসক্লাব যশোরের সম্পাদক এস এম তৌহিদুর রহমান, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শাহারুল ইসলাম, দৈনিক সমাজের কথা পত্রিকার বার্তা সম্পাদক হাবিবুর রহমান মিলন প্রমুখ।
এদিকে, মরহুমার মৃত্যুর খবর পেয়ে তার শহরের কাজীপাড়া কাঁঠালতলা এলাকার বাড়িতে হাজারো মানুষ সমবেদনা জানাতে আসেন। এরমধ্যে ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি পীযুষ কান্তি ভট্টাচার্য্য, সাবেক বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সম্পাদক খয়রাত হোসেন, সাবেক বন ও পরিবেশ সম্পাদক আব্দুল খালেক, সাবেক কৃষি সম্পাদক মোশাররফ হোসেন, সাবেক তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক আসাদুজ্জামান, সাবেক ত্রাণ ও দুর্যোগ সম্পাদক মোফাজ্জেল হোসেন খসরু, সাবেক শিক্ষা ও পাঠচক্র সম্পাদক আসিফ-উদ-দ্দৌলা সরদার অলোক, সাবেক সদস্য রেজাউল ইসলাম, জিয়াউল হাসান হ্যাপি, জেলা যুবলীগের সহসভাপতি সৈয়দ মেহেদী হাসান, জেলা মহিলা লীগের সভাপতি নুরজাহান ইসলাম নীরা, সাধারণ সম্পাদক সৈয়দা জারিন রহমান, জেলা যুবমহিলা লীগের সভাপতি মঞ্জুন্নাহার নাজনীন সোনালী, সাধারণ সম্পাদক পৌর কাউন্সিলর শেখ রোকেয়া পারভীন ডলি, জেলা কৃষকলীগের সহসভাপতি আব্দুল মতলেব বাবু, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক এসএম মাহমুদ হাসান বিপু, সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক শফিকুল ইসলাম জুয়েল, জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আরিফুল ইসলাম রিয়াদ, সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন বিপুল, সহসভাপতি নিয়ামত উল্লাহ, শহর স্বেচ্ছাসেবকলীগের সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর হোসেন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শিপন হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক মনোয়ার হোসেন জনি, ধর্ম সম্পাদক মনিরুল ইসলাম, কেমিস্টস্ এন্ড ডায়াগনস্টিক সমিতির পক্ষ থেকে এএম জালাল উদ্দিন বিলু, জেলা ট্রাক মালিক সমিতি প্রমুখ।

শেয়ার