মুস্তাফিজের অভাব টের পেয়েছে বাংলাদেশ

b team
সমাজের কথা ডেস্ক॥ বোলিং আক্রমণের সেরা অস্ত্র মুস্তাফিজুর রহমানকে ছাড়াই পাকিস্তানকে হারিয়ে এশিয়া কাপের ফাইনালে পৌঁছেছে বাংলাদেশ। এই ম্যাচে পেসারদের দারুণ বোলিংয়ের পরও অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা জানিয়েছেন, মুস্তাফিজের অভাব পুরোটা সময় অনুভব করেছেন তারা।
বুধবার মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টস জিতে ব্যাট করতে নামা পাকিস্তানকে ৭ উইকেটে ১২৯ রানের বেশি করতে দেয়নি বাংলাদেশ। ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে মাশরাফি জানান, শুরুর ভালো বোলিংয়েই বড় সংগ্রহ গড়তে পারেনি পাকিস্তান।

“টস জিতলে কিন্তু আমরাও প্রথমে ব্যাটিং করতে চেয়েছিলাম। উইকেটে কিন্তু তেমন কিছু ছিল না। কিন্তু শুরুতে বোলারদের ভালো বোলিংয়ে ওরা খুব বেশি রান করতে পারেনি। পাকিস্তানকে ১২৯ রানে বেধে রাখা কিন্তু বড় একটি ব্যাপার। মুস্তাফিজকে ছাড়া এই কাজ করতে পারলেও ওর অভাব কিন্তু পুরো দলের সবাই অনুভব করেছে।”

মুস্তাফিজের অনুপস্থিতিতে পেস বোলিংয়ের ধার কমেছে। কিন্তু তিন পেসার তাসকিন আহমেদ, আল আমিন হোসেন ও মাশরাফি এদিন দারুণ বোলিংয়ে পাকিস্তানের ব্যাটসম্যানদের বেধে রাখেন।

৪ ওভারে ১৪ রান দিয়ে এক উইকেট নেন তাসকিন। আল আমিন ৩ উইকেট পেতে খরচ করেন ২৫ রান। মাশরাফি ২৯ রানে নেন এক উইকেট।

মাশরাফি মনে করেন, মুস্তাফিজ খেললে ১২৯ পর্যন্ত যেতে পারতো না পাকিস্তান।

“আমাদের যখন উইকেট দরকার হয় তখনই কিন্তু মুস্তাফিজ আসে। আজ সে ছিল না। তাসকিন, আল আমিন আজ ভালো বোলিং করেছে। কিন্তু এই ম্যাচে মুস্তাফিজ খেললে ওদের রান ১২৯ হত না, আরও ১৫ রান কম হত। জেতার পরও আমরা আজ ওর অভাব অনুভর করেছি।”

চোটের জন্য এশিয়া কাপ শেষ হয়ে যাওয়া মুস্তাফিজকে বিশ্বকাপের শুরু থেকে পাওয়ার ব্যাপারে আশাবাদী মাশরাফি।

শেয়ার