প্রচারণা শুরু, চলছে ব্যালট ছাপানো

up nirbachon
সমাজের কথা ডেস্ক॥ আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনের প্রথম ধাপের প্রার্থীরা প্রচার-প্রচারণা শুরু করেছেন। ইতোমধ্যে প্রার্থীদের প্রতীক বরাদ্দও দেওয়া হয়েছে। তাই শুক্রবার (০৪ মার্চ) থেকে সব ইউপিতেই নৌকা-ধানের শীর্ষসহ অন্যান্য প্রতীকেও দলগুলোর প্রার্থীরা পুরো দমে ক্যাম্পেইন শুরু করেছেন। এ প্রচারণা শেষ হবে ভোটগ্রহণ শুরুর ৩২ ঘণ্টা আগে।
নির্বাচন কমিশন (ইসি) ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী, আগামী ২২ মার্চ দেশের ৭ শতাধিক ইউপিতে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। প্রার্থীদের প্রচারণাকে কেন্দ্র করে নির্বাচন কমিশন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটও মাঠে নামিয়েছে। এছাড়া প্রয়োজনে জেলা প্রশাসকদেরও অতিরিক্ত ম্যাজিস্ট্রেট হিসেবে নিয়োগ ছাড়াও আইনশৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণের নির্দেশনা দিয়েছে কমিশন। মাঠের ভোট উৎসব শুরুর সঙ্গে সঙ্গে নিজেদের প্রস্তুতিও গুছিয়ে নিচ্ছে সংস্থাটি।
ইসির বাজেট শাখার সিনিয়র সহকারী সচিব মো. এনামুল হক বলেন, ইতোমধ্যে সিল, প্যাড, গালা, দড়ি, বস্তাসহ ভোটের প্রয়োজনীয় উপকরণ কেনার প্রক্রিয়া সম্পন্ন করা হয়েছে। এখন ব্যালট পেপার ছাপালেই সব প্রস্তুতি শেষ হবে।
এদিকে ইসির মুদ্রণ শাখার সহকারী সচিব সৈয়দ গোলাম রাশেদ জানান, সংরক্ষিত ও সদস্য পদের জন্য ব্যালট পেপার আগেই ছাপানো শুরু হয়েছে। বর্তমানে সে সবের মুদ্রণ প্রায় শেষ পর্যায়ে রয়েছে। এখন চলছে চেয়ারম্যান পদের ব্যালট পেপার ছাপানোর কাজ। প্রথম ধাপের নির্বাচনের ১ কোটি ৩০ লাখের বেশি ভোটার রয়েছে। এর সম সংখ্যক ব্যালট পেপার ছাপাতে হবে। তবে মাঠ পর্যায় থেকে চেয়ারম্যান পদে সর্বমোট প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর হিসাব না আসায় পুরো দমে ব্যালট পেপার মুদ্রণ করা যাচ্ছে না।
এ বিষয়ে ইসির সিনিয়র সহকারী সচিব ফরহাদ হোসেন জানিয়েছেন, এখনও সব ইউপি থেকে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর লিস্ট আসেনি। এজন্য আরও দু’একদিন সময় লেগে যেতে পারে। চেয়ারম্যান, সাধারণ ও সংরক্ষিত সদস্য পদ মিলিয়ে প্রথম ধাপে প্রায় চার কোটির মতো ব্যালট পেপার ছাপাতে হচ্ছে ইসিকে। এক্ষেত্রে ১২টি প্রতীক নিয়ে সাধারণ সদস্য পদের সবুজ রঙের ও ১০টি প্রতীক নিয়ে সংরক্ষিত পদের জন্য গোলাপী রঙের ব্যালট পেপার ছাপানো হচ্ছে। আর চেয়ারম্যান পদের ব্যালট পেপার হবে সাদা রঙের। তবে এতে প্রতীক সংখ্যা থাকবে সংশ্লিষ্ট ইউপিতে চেয়ারম্যান পদের প্রার্থী সংখ্যার সমান।
এদিকে প্রার্থীরা প্রচরণার ক্ষেত্রে কোনো মিছিল, মশাল মিছিল বা শোভাযাত্র করতে পারবেন না। তবে পথসভা করতে পারবেন। কিন্তু জনগণের অসুবিধা হয় এমন স্থানও পথসভার জন্য ব্যবহার করা যাবে না।
পোস্টার কোথাও সাঁটানো যাবে না। এতে দলীয় প্রধান ও প্রার্থীর নিজের ছবি ছাড়া অন্য কারো ছবি ব্যবহার করতে পারবেন না প্রার্থীরা। পোস্টার, লিফলেট ঝুঁলিয়ে দিতে হবে। এছাড়া প্রচারণার জন্য নির্বাচনী ব্যয় নির্বাচন পরিচালনা বিধিতে নির্ধারিত অঙ্কের বেশি হলে শাস্তি পেতে হবে।

শেয়ার