যশোর সদরের ১৫ ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন ৪৬ চেয়ারম্যানসহ ৭১৩ প্রার্থীর মনোনয়ন দাখিল

up nirbachon
নিজস্ব প্রতিবেদক॥ যশোর সদর উপজেলার ১৫ ইউনিয়ন পরিষদে চেয়ারম্যান পদে ৪৬ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। এর মধ্যে আওয়ামী লীগ, বিএনপি ১৫ জন করে ছাড়াও স্বতন্ত্র ১২ জন এবং জাতীয় পার্টি ও ইসলামী আন্দোলনের দুই জন করে প্রার্থী রয়েছেন। গতকাল মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিন পর্যন্ত ১৫ ইউনিয়নের ১৩৫টি সাধারণ সদস্যের (পুরুষ মেম্বার) বিপরীতে ৫৩২ জন ও ৪৫টি সংরক্ষিত আসনের সদস্য পদে ১৩৫ জন মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। গত দুই দিন এসব প্রার্থীরা উৎসবমুখর পরিবেশে মনোনয়নপত্র জমা দেন। উপজেলার সাতটি রিটানিং কার্যালয়ে এসব মনোনয়নপত্র জমা দেওয়া হয়।
যশোর সদর উপজেলা নির্বাচন অফিসার ওয়াহিদা আফরোজ জানান, নির্বাচনী তফসিল অনুযায়ী বুধবার ছিল মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিন। দাখিলকৃত মনোনয়ন ৫ ও ৬ মার্চ (শনি ও রবিবার) যাচাই বাছাই করা হবে। ১৩ মার্চ বৈধ প্রার্থীরা তাদের মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করতে পারবেন। আর ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে ৩১ মার্চ।
উপজেলা নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা যায়, হৈবতপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান পদে মনোনয়নপত্র জমা দেন আওয়ামী লীগের সিরাজুল ইসলাম ও বিএনপির রবিউল ইসলাম রবি। এই ইউনিয়নের সংরক্ষিত সদস্য পদে সাত জন নারী ও সাধারণ সদস্য পদে ২৭ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। চুড়ামনকাটি ইউনিয়নে চেয়ারম্যান প্রার্থী হতে মানোনয়নপত্র জামা দিয়েছেন আওয়ামী লীগের আব্দুল মান্নান মুন্না ও বিএনপির আব্দুস সাত্তার। এছাড়া সংরক্ষিত সদস্য পদে আট জন ও সাধারণ সদস্য পদে ২৭ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। কাশিমপুর ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন তিন জন। এর মধ্যে আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীক নিয়ে লড়বেন মশিয়ার রহমান সাগর। বিএনপির ধানের শীষের প্রার্থী হয়েছেন আইয়ুব হোসেন ও জাতীয় পাটির লাঙলের প্রার্থী হিসেবে আমির হোসেন মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। এখান থেকে সংরক্ষিত সদস্য পদ জন্য মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন ১০ জন ও সাধারণ সদস্য পদে ৩৯ জন প্রার্থী। লেবুতলা ইউনিয়নের চেয়াম্যান পদের জন্য আওয়ামী লীগের আলীমুজ্জামান ও বিএনপির মনোয়ারুল ইসলাম ছাড়াও শহিদুল ইসলাম ও রাজু আহমেদ নামে দুই জন স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। আর লেবুতলার ৯টি ওয়ার্ডের সাধারণ সদস্য পদের জন্য ২৯ জন ও তিনটি সংরক্ষিত আসনের জন্য মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন আটজন প্রার্থী। ইছালী ইউনিয়নে ইছালী ইউনিয়নে নৌকার প্রার্থী হিসেবে চেয়ারম্যান পদে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন এসএম আফজাল হোসেন, বিএনপির আব্দুল মোতলেব বিশ্বাস ও স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মাজাহারুল ইসলাম। ইছালী ইউনিয়নে সংরক্ষিত সদস্য পদে ১০ জন ও সাধারণ সদস্য পদে ৩০ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। নওয়াপাড়ায় ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শহিদুল ইসলাম মিলনের স্ত্রী নাছরিন সুলতানা ও বিএনপির আলতাফ হোসেন, ইসলামী আন্দোলনের এনামুল হাসান। এই ইউনিয়নে সংরক্ষিত সদস্য পদে সাত জন ও সাধারণ সদস্য পদে ৩৯ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। উপশহর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে এহসানুর রহমান লিটু ও বিএনপির প্রার্থী হিসেবে রেজাউল ইসলাম কামাল মনোনয়নপত্র জমা দেন। এছাড়া সংরক্ষিত সদস্য পদে ৯ জন ও সাধারণ সদস্য পদে ২৭ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দেন। আরবপুর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকের প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন শাহারুল ইসলাম। তার প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন বিএনপির সিরাজুল ইসলাম। এই ইউনিয়নে সংরক্ষিত সদস্য পদে ১০ জন ও সাধারণ সদস্য পদে ৩২ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দেন। দেয়াড়া ইউনিয়নে মনোনয়নপত্র জমা দেন আওয়ামী লীগের আনিছুর রহমান আনিছ ও বিএনপির এনামুল হক চপল। এছাড়া সংরক্ষিত সদস্য পদে ৯ জন ও সাধারণ সদস্য পদে ৩৫ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। কচুয়া ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে চারজন প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। এর মধ্যে রয়েছেন আওয়ামী লীগের লুৎফর রহমান, বিএনপির অধ্যাপক আব্দার হোসেন খাঁন এবং স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে জাকির হোসেন ও আব্দুল মালেক। কচুয়া ইউনিয়নে সংরক্ষিত সদস্য পদে ১০ জন নারী ও সাধারণ সদস্য পদে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন ৩৯ জন প্রার্থী। রামনগর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের মোছা. নাজনীন নাহার আলমগীর ও বিএনপির মাসুদুর রহমান শামীম মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। এছাড়া মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন সংরক্ষিত সদস্য পদে ১১ জন ও সাধারণ সদস্য পদে ৪৪ জন প্রার্থী। নরেন্দ্রপুর ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে নৌকার প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন মোদাচ্ছের আলী। একই পদে বিএনপি আব্দুস সালাম বিশ্বাস ও স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে আমিনুর রহমান মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। এছাড়া সংরক্ষিত সদস্য পদে ১০ জন ও সাধারণ সদস্য পদে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন ৩৫ জন প্রার্থী। বসুন্দিয়া ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের রিয়াজুল ইসলাম খান রাসেল, বিএনপির অ্যাডভোকেট নূর জামান খান এবং স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন রেদওয়ান খান চুন্নু ও আবু বক্কর। এছাড় মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন সংরক্ষিত সদস্য পদে ১০ জন ও সাধারণ সদস্য পদে ৪৭ জন প্রার্থী। চাঁচড়া ইউনিয়নে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন আনোয়ারুল করিম আনু, বিএনপির গোলাম মোস্তফা, ইসলামী আন্দোলনের প্রার্থী হিসেবে আব্দুল কাদির এবং স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে আব্দুল আজিজ বিশ্বাস ও রেজাউল করিম। এই ইউনিয়ন থেকে সংরক্ষিত সদস্য পদে আট জন ও সাধারণ সদস্য পদে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন ৩৫ জন প্রার্থী। ফতেপুর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের শেখ সোহরাব হোসেন, বিএনপির রবিউল ইসলাম, জাতীয় পার্টির আবু হারিজ এবং আলমগীর হোসেন ও মফিজুর রহমান নামে দুই জন স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে চেয়ারম্যান পদে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। এছাড়া এই ইউনিয়ন থেকে সংরক্ষিত সদস্য পদে আট জন ও সাধারণ সদস্য পদে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন ৪৮ জন প্রার্থী।

শেয়ার