যশোরে পুলিশের ওপর হামলা এবং অস্ত্র উদ্ধার মামলায় যুবলীগ নেতা আলমগীরের খুনি পাগলা শাহিনসহ ৭জনের বিরুদ্ধে দুটি চার্জশিট

mamla
নিজস্ব প্রতিবেদক॥ যশোরে পুলিশের ওপর হামলা এবং অস্ত্র উদ্ধারের মামলায় পৃথক দুটি চার্জশিট দিয়েছে পুলিশ। যুবলীগ নেতা আলমগীরের খুনি পাগলা শাহিনসহ ৭জনের বিরুদ্ধে সদর উপজেলার নরেন্দ্রপুর পুলিশ ক্যাম্পের এসআই আব্দুর রহিম হাওলাদার আদালতে এচার্জশিট দাখিল করেন।
অভিযুক্তরা হলেন, সদর উপজেলার রামনগর পুকুরকুল এলাকার শুকুর মোল্লার ছেলে চি‎ি‎হ্নত সন্ত্রাসী এবং যুবলীগ নেতা আলমগীরের খুনি পাগলা শাহিন, আব্দুস সামাদের ছেলে নাজমুল ইসলাম, রামনগর পিকনিক কর্ণার এলাকার মৃত লিয়াজ উদ্দিন সরদারের ছেলে আব্দুল গফুর ওরফে গফুর ডাকাত, চানপাড়া গ্রামের আইয়ুব হোসেনের ছেলে বিপুল খাঁ ওরফে কটা, আবাদ কচুয়া গ্রামের হাশেম গাজীর ছেলে শিমুল ওরফে বিপ্লব, মৃত ফটিকের ছেলে জহুরুল হক এবং মৃত আসমত ওরফে হাসমত আলীর ছেলে মজনু খোঁড়া।
থানা সূত্রে জানা গেছে, গত বছরের ১৫ সেপ্টেম্বর রাতে পাগলা শাহিনের নেতৃত্বে একদল সন্ত্রাসী কচুয়া বাজারে ডাকাতির প্রস্ততি নেয়। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পেরে নরেন্দ্রপুর পুলিশ ক্যাম্পের এএসআই বিল্লাল হোসেন সেখানে অভিযান চালান। সেখান থেকে একটি বিদেশি পিস্তলসহ ডাকাত নাজমুলকে আটক করেন। এসময় নাজমুলের সহযোগী অন্যরা তাকে ছাড়িয়ে নেয়ার জন্য পুলিশের ওপর হামলা চালিয়ে ৩ রাউন্ড গুলিবর্ষণ করে। পুলিশ এসময় পাল্টা কয়েক রাউন্ড গুলি চালালে ওই সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়। এঘটনায় পুলিশের উপর হামলা এবং অস্ত্র আইনে পৃথক দু’টি মামলা করে। তদন্তকারী কর্মকর্তা এমামলায় ওই ৭ জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট দাখিল করে।

শেয়ার