আনুষ্ঠানিক যাত্রা শুরু করলো বিএসএল

bsl
সমাজের কথা ডেস্ক॥ ঘড়ির কাঁটায় তখন সময় ঠিক ৬ বেজে ৪৫ মিনিট। মঞ্চে বাংলাদেশ সুপার লিগ’র লোগো উন্মোচনের জন্য দাঁড়িয়ে আছেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের, ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী শ্রী বিরেন শিকদার, উপমন্ত্রী আরিফ খান জয়, বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের সহ সভাপতি বাদল রায় বাংলাদেশ সুপার লিগ বিএসএল’র প্রধান সত্ত্বাধিকারী সাইফ পাওয়ার টেক’র ব্যবস্থাপনা পরিচালক তরফদার মো: রুহুল আমিন সহ অন্যান্যরা।

ঠিক তখনই লেজার লাইটের লাল, নীল আলো ও স্টেডিয়াম কাঁপানো সুরের মূর্ছনায় উন্মোচন করা হয় বিসিএল’র লোগো।

আর এই লোগো উন্মেচনের মধ্য দিয়েই আনষ্ঠানিকভাবে যাত্রা শুর করলো বাংলাদেশ সুপার লিগ ফুটবল ‘বিএসএল’।

সে এক নয়নাভিরাম দৃশ্য! বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের ইতিহাসে যা ঘটেনি তাই ঘটলো। এতো বড় মঞ্চ সাজিয়ে, লাল, নীল, হলুদ ও সবুজ রঙের আলোয় আলোকিত এমন আয়োজন বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন আগে কখনওই আয়োজন করতে পারেনি যা রোববার (২৮ ফেব্রুয়ারি) বঙবন্ধু স্টেডিয়ামে করে দেখালো।

বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামের আকাশ কেন রোববার সন্ধ্যায় বর্ণিল আলোয় আলোকিত হলো? কারণটি নিশ্চয়ই এরই মধ্যে সবাই জেনে গছেন। দেশের আটটি বিভাগের আট ফ্র্যাঞ্চাইজিকে নিয়ে ইউরোপ ও ল্যাটিন আমেরিকার ফুটবলারদের অংশগ্রহণে এ বছরের নভেম্বর- ডিসেম্বরে মাঠে গড়াবে দেশের প্রথম ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগ ফুটবল বাংলাদেশ সুপার লিগ ‘বিএসএল’। তাইতো এমন আয়োজন।

এর আগে গেল ২৫ ফেব্রুয়ারি বাফুফে এক সংবাদ সম্মেলন করে জানিয়েছিল যে, লোগো উন্মোচন অনুষ্ঠানে আনুমানিক ব্যয় হবে ১ কোটি টাকা।

বাফুফে ও সাইফ পাওয়ার টেক উন্মোচন অনুষ্ঠানটি যে এমন আলোঝলমলে করে দেশবাসীর সামনে উপস্থাপন করবে তা হয়তো না দেখলে অনুধাবন করা যেত না।

অনুষ্ঠান শেষে আতশবাজি ও ইগল ডান্স গ্রপের নয়নাভিরাম নৃত্য পরিবেশন লোগো উন্মোচন অনুষ্ঠানটিকে আরও আকর্ষণীয় করে তোলে।

শেয়ার