৩০ বছর পর মিলিত হলেন দুই বোন

Collombia
সমাজের কথা ডেস্ক॥ কলম্বিয়ার একটি শহর বরফধসে ধ্বংস হওয়ার পরিপ্রেক্ষিতে দুই বোন বিচ্ছিন্ন হয়ে যাওয়ার দীর্ঘ ৩০ বছর পর পুনরায় মিলিত হয়েছেন।
বিবিসি বলছে, ১৯৮৫ সালের ১৩ নভেম্বর আরমেরো শহরের কাছে তোলিমা ডিপার্টমেন্ট আগ্নেয়গিরির অগ্ন্যুৎপাতের ঘটনায় জ্যাকুইলিন এবং লোরেনা সানচেজ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েন।
অগ্ন্যুৎপাতের কারণে বরফধসে শহরটি ধ্বংস হয়ে যায়। শহরটির আনুমানিক ২৯ হাজার বাসিন্দার মধ্যে ২০ হাজারের বেশি বাসিন্দার মৃত্যু হয়।
কিন্তু ওই ঘটনায় বেঁচে যাওয়া দুই বোনকে দুই পৃথক পরিবার দত্তক হিসেবে গ্রহণ করে। দুই বোনের কেউই একে অপরের পরিণতি জানতেন না। তারা বছরের পর বছর একে অপরকে খুঁজে বেড়িয়েছেন।
লোরেনা সানচেজ বলেন, “একই সঙ্গে সুন্দর এবং বেদনাদায়ক ঘটনা এটি। কারণ ওই ট্র্যাজেডি ঘটে যাওয়ার পর ৩০ বছর পেরিয়ে গেছে। আমি শেষ পর্যন্ত আমার বোনের কী হয়েছে তা খুঁজে পেয়েছি।” আরমেরোর তোলিমা ডিপার্টমেন্টের ঘটনার শিকারদের সহায়তার জন্য প্রতিষ্ঠিত আরমান্দো আরমেরো ফাউন্ডেশনের একটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে চালানো প্রচারণার ফলে দুই বোন পরস্পরকে খুঁজে পান। ডিএনএ পরীক্ষার মাধ্যমে তাদের পরিচয় নিশ্চত করা হয়।
জ্যাকুইলিন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একটি ভিডিও ক্লিপ দেখতে পান যেখানে তার বোন লোরেনা ওই বরফধস থেকে বেঁচে যাওয়া পরিবারের সদস্যদের সম্পর্কে তথ্যের আবেদন জানাচ্ছেন। জ্যাকুইলিন বলেন, “আমি হঠাৎ করেই খুবই উত্তেজিত এবং নার্ভাস হয়ে পড়েছিলাম। ভেবে দেখুন, আপনি জানেন না আপনি প্রত্যাখ্যাত হবেন নাকি অন্যকিছু ঘটবে কিনা।” ওই ফাউন্ডেশনের তত্ত্বাবধানে দুই বোনের ডিএনএ পরীক্ষা করার পর তা মিলে যায়। তবে ওই দুই বোন তাদের পরিবারের কোনো খোঁজ পাননি।

শেয়ার