জয়া-সাঙ্গা বিহীন লঙ্কাকেও একই সমীহ মাশরাফির

masrafi
সমাজের কথা ডেস্ক॥ ২০১৪ সালে এই বাংলাদেশেই এশিয়া কাপ ও টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জয়ী দল থেকে মাহেলা জয়াবর্ধনে ও কুমার সাঙ্গাকারা নেই। তিলকরতেœ দিলশানের ফর্মে পড়েছে বয়সের থাবা। বাজে ফর্মের কারণে নেই লাহিরু থিরিমান্নে। দলে বেশ কজন নবীন ক্রিকেটার। কিন্তু এই শ্রীলঙ্কাকেও আগের মতোই সমীহ করছেন মাশরাফি বিন মুর্তজা।
বাংলাদেশ অধিনায়কের মতে, একাই ম্যাচ জেতানোর মত বেশ কজন ক্রিকেটার আছেন এই শ্রীলঙ্কা দলেও।
এশিয়া কাপে রোববার বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ শ্রীলঙ্কা। লঙ্কান ক্রিকেটের দুই মহীরূহ, জয়াবর্ধনে-সাঙ্গাকারার বিদায়ের পর এই প্রথম শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে খেলতে নামছে বাংলাদেশ। তবে মাশরাফি জানালেন, দুই গ্রেটের না থাকাকে বড় কোনো সুবিধা ভাবছে না দল।
“টি-টোয়েন্টিতে আসলে জয়া-সাঙ্গার সময়ই শ্রীলঙ্কার আরও অনেক ম্যাচ উইনার ছিল। এই দলেও আছে। দিলশান ফর্মে ফিরলে বিপজ্জনক, মালিঙ্গা প্রথম ম্যাচ জিতিয়েছে। পেরেরা-চান্ডিমালরা আছে। টি-টোয়েন্টিতে যে কেউ ম্যাচ জেতাতে পারে।”
শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে চারটি টি-টোয়েন্টি খেলে সবকটিই হেরেছে বাংলাদেশ। সবশেষ দুটি ম্যাচে, ২০১৪ সালের শুরুতে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন মাশরাফিই। নিয়মিত অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম চোট পাওয়ায় সেবার মাশরাফি ছিলেন দায়িত্বে।
ওই দুই ম্যাচেই বাংলাদেশ হেরেছিল শেষ বলে। সেই সিরিজ থেকে অনুপ্রেরণা কিংবা নতুন কিছুর তাড়না, কিছুই বয়ে আনতে চান না মাশরাফি। শুধু বাস্তবায়ন করতে চান নিজেদের পরিকল্পনা।
“আমি আসলে আগের সিরিজ বা ম্যাচ নিয়ে খুব কমই ভাবি। নতুন ম্যাচে সবকিছুই নতুন করে শুরু করতে হয়। প্রতিপক্ষ নিয়ে আমরা ভাবছিও না। শুধু নিজেদের পরিকল্পনাগুলো ঠিকঠাক মাঠে বাস্তবায়ন করতে চাই। পারলে আশা করি ভালো কিছুই হবে।”

শেয়ার