‘সোমালিয়ায় আল-শাবাবের হামলায় ১৮০ কেনিয়ান সেনা নিহত’

soma
সমাজের কথা ডেস্ক॥ সোমালিয়ার দক্ষিণাঞ্চলে এল-অ্যাডে সেনাঘাঁটিতে গেল মাসে আল-শাবাব জঙ্গিদের হামলায় অন্ততপক্ষে ১৮০ জন কেনিয়ান সেনা নিহত হয়েছেন। বিবিসি বলছে, সোমালিয়ার প্রেসিডেন্ট এই তথ্য জানিয়েছেন।
তবে কেনিয়ার সেনাবাহিনী জানিয়েছে, নিহতের এই সংখ্যা সত্য নয়। কিন্তু তারাও প্রকৃত সংখ্যা জানাতে অস্বীকৃতি জানিয়েছে। আল-শাবাব দাবি করেছে, তারা প্রায় ১০০ কেনিয়ান সেনাকে হত্যা করেছে।
যদি ১৮০ সেনাকে হত্যার ঘটনা সত্যি হয়ে থাকে তবে এক দশক আগে প্রতিষ্ঠিত জঙ্গি গোষ্ঠী আল-শাবাবের এটিই সবচে প্রাণঘাতী হামলা।
এরআগে আল-শাবাব সবচে প্রাণঘাতী হামলাটি চালিয়েছিল ২০১৪ সালে। ওই বছরের এপ্রিলে কেনিয়ার উত্তর-পূর্বাঞ্চলে গারিসা বিশ্ববিদ্যালয় কলেজে আল-শাবাবের দিনব্যাপী হামলার ওই ঘটনায় ১৪৮ জন নিহত হন।
সোমালিয়ার প্রেসিডেন্ট হাসান শেখ মোহামাদ দেশটির একটি টেলিভিশনে দেওয়া সাক্ষাৎকারে ১৮০ কেনিয়ান সেনা নিহত হওয়ার তথ্য প্রকাশ করেন।
এল-অ্যাডে হামলা কেনিয়ার জন্য একটি বড় আঘাত। আর কেনিয়ার পক্ষ থেকে সোমালিয়ার প্রেসিডেন্টের দেওয়া তথ্য প্রত্যাখ্যানের বিষয়টিতে অবাক হওয়ারও কিছু নেই।
এত সংখ্যক সেনা নিহত হওয়ার খবর নিশ্চিত করা হলে সোমালিয়ায় কেনিয়ান সেনা রাখার বিষয়টি নিয়ে প্রশ্ন এবং বিরোধিতা দেখা দিতে পারে। এই আশঙ্কা থেকে কেনিয়ার সরকারও বিষয়টি স্বীকার করছে না।
তবে সোমালিয়ার প্রেসিডেন্ট কেনিয়ান সেনা নিহতের এই পরিসংখ্যান কোথা থেকে পেয়েছেন তা পরিষ্কার নয়। পাশাপাশি এ ধরনের স্পর্শকাতর তথ্য প্রকাশে কেনিয়ার সঙ্গে কূটনৈতিক টানাপড়েন সৃষ্টি হতে পারে জেনেও কেন তা প্রকাশ করলেন তাও পরিষ্কার নয়। সোমালিয়ায় আফ্রিকান ইউনিয়নের শক্তিশালী ২২ হাজার সেনা আল-শাবাবের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে নিয়োজিত রয়েছে। এরমধ্যে কেনিয়ারই রয়েছে ৪ হাজার সেনা।

শেয়ার