কোহলি-রোহিতদের হুমকি পাকিস্তানের গতি

koheli
সমাজের কথা ডেস্ক॥ পাকিস্তানের পেসারদের সঙ্গে ভারতের ব্যাটসম্যানদের লড়াই, দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী দলের ম্যাচের এই চিত্র যেন চিরায়ত। এশিয়া কাপে মুখোমুখি হওয়ার আগেও দুই দলই মানছে, ম্যাচের ভাগ্য গড়ে দিতে পারে এটাই।
মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে আগামী শনিবার ভারত-পাকিস্তানের লড়াই শুরু হবে সন্ধ্যা সাড়ে সাতটায়। আগের দিন সংবাদ সম্মেলনে পাকিস্তানের অধিনায়ক শহিদ আফ্রিদি জানান, ভারতের শক্তিশালী ব্যাটিং লাইনআপের পরীক্ষা নেওয়ার সামর্থ্য তার বোলারদের আছে।
“ভারতের ব্যাটসম্যানরা সাধারণত স্পিনারদের খুব ভালো খেলে। ওদের দলে ছন্দে থাকা কিছু খেলোয়াড় আছে। আর সাম্প্রতিক সময়ে দল হিসেবেও ওরা ভালো ক্রিকেট খেলছে। আমাদের দলে আমি ছাড়াও স্পিনার হিসেবে আছে মোহাম্মদ নওয়াজ। সে পিএসএলে খুব ভালো খেলেছে। আমাদের পেসাররাও (মোহাম্মদ) আমির, ওয়াহাব (রিয়াজ), (মোহাম্মদ) ইরফান খুব ভালো অবস্থায় আছে।”
“এটা (পাকিস্তানের পেসার আর ভারতের ব্যাটসম্যানদের লড়াই) আসলে সব সময়ই ছিল। আমি জানি, ওরা বড় স্কোরের জন্য খুব চেষ্টা করবে। তবে আমাদের ব্যাটিংও বেশ শক্তিশালী।”
মিরপুর উইকেট দেখে খুব খুশি পাকিস্তানের অধিনায়ক। তার বিশ্বাস, এই উইকেটে পেসাররাই হবেন মূল অস্ত্র।
“আমরা চার পেসার নিয়ে এসেছি। আর ওদের ‘উইকেট টেকিং বোলার’ হিসেবে ভাবা হয়। আমাদের পেসাররা প্রথম ছয় ওভার কাজে লাগানোর চেষ্টা করবে এবং ওদের ব্যাটসম্যানদের দ্রুত ফেরানোর চেষ্টা করবে।”
ভারতের উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান রোহিত শর্মার বিশ্বাস, শনিবারের ম্যাচে পাকিস্তানের বাঁহাতি পেসারদের সামলানোই হবে সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ।
“কোনো সন্দেহ নেই ওদের একটি ভয়ঙ্কর বোলিং আক্রমণ আছে। আর আমাদের শক্তির দিক হচ্ছে ব্যাটিং। আমরা নিজেদের শক্তির ওপরই বেশি মনোযোগ দেব আর পরিকল্পনা অনুযায়ী প্রস্তুতি নেব।”
নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে পাঁচ বছর পর আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফেরা আমির হতে পারেন পাকিস্তান সবচেয়ে বড় অস্ত্র। রোহিত জানান, একক কাউকে নিয়ে ভাবছেন না তারা। প্রতিপক্ষের সবার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছেন তারা।
লড়াইয়ের ভেতরের লড়াইয়ে নিজেদের বোলিং বিভাগকেই এগিয়ে রাখছেন রোহিত, “ওদের বোলিং আক্রমণে কয়েকজন ভালো বাঁহাতি পেসার আছে। তবে আমাদের বোলিং আক্রমণ বেশি শক্তিশালী এবং আমাদের বৈচিত্র্যও অনেক বেশি।”

শেয়ার