সাংবাদিক নেতা তৌহিদুর রহমানকে পুলিশ সুপারের হুমকি, নেতৃবৃন্দের নিন্দা ও উদ্বেগ প্রকাশ

humki
যশোরের পুলিশ সুপার আনিসুর রহমান সোমবার প্রেসক্লাব যশোরের সম্পাদক এবং সমকাল ও চ্যানেল টুয়েন্টিফোরের স্টাফ রিপোর্টার এসএম তৌহিদুর রহমানকে হুমকি দিয়েছেন। তিনি সোমবার সকাল ১১ টা ১০ মিনিটে তৌহিদুর রহমানকে মুঠোফোনে বলেন-‘বর্তমানে আপনি যে কর্মকান্ড করছেন, তা ভালো করছেন। এর জন্য আপনাকে ধন্যবাদ। ভালো থাকবেন’। এই বলে তিনি ফোন কেটে দেন। পরবর্তিতে আমরা জানতে পারি, কয়েকজন পুলিশ কর্মকর্তা তৌহিদুর রহমানসহ তার পরিবার ও আত্মীয় স্বজনদের সম্পর্কে ব্যাপক ভাবে খোঁজখবর নিচ্ছে।
সম্প্রতি যশোর পুলিশ শহরের গাড়িখানা এলাকায় শত বছর ধরে বসবাসকারী ৪০ টি পরিবারকে উচ্ছেদ করে। বেআইনিভাবে চালানো এই উচ্ছেদ অভিযান নিয়ে গণমাধ্যমে ধারাবাহিক সংবাদ প্রচার করা হয়। আমরা মনে করি, এই সংবাদ প্রচার করায় পুলিশ সুপার যশোরের সাংবাদিকদের উপর বেশি ক্ষিপ্ত হন এবং সাংবাদিকদের নেতা হিসাবে তৌহিদুর রহমানকে হুমকি দেন।
পুলিশের এই ভূমিকায় যশোরের সাংবাদিকসমাজ উদ্বিগ্ন। আমরা মনে করছি, এর মাধ্যমে তৌহিদুর রহমান, তার আত্মীয় স্বজনসহ অন্যান্য সাংবাদিকদের হয়রানির প্রস্তুতি শুরু করা হয়েছে। আমরা যশোর পুলিশের এই হিংসাত্মক আচরণের তীব্র নিন্দা ও ক্ষোভ জানাচ্ছি। পাশাপাশি যশোরের পুলিশ যদি এই ধরনের কর্মকান্ড থেকে বিরত না হয়, তাহলে যশোরের সাংবাদিক সমাজ গণমানুষকে সাথে নিয়ে বৃহত্তর আন্দোলনে যেতে বাধ্য হবে।
বিবৃতিদাতারা হলেন- প্রেসক্লাব যশোরের সভাপতি দৈনিক যশোর সম্পাদক জাহিদ হাসান টুকুন ও যুগ্ম সম্পাদক সাইফুল ইসলাম সজল, যশোর সংবাদপত্র পরিষদের সভাপতি দৈনিক কল্যাণ সম্পাদক একরাম-উদ-দ্দৌলা ও সাধারণ সম্পাদক গ্রামের কাগজ সম্পাদক মবিনুল ইসলাম মবিন, যশোর সাংবাদিক ইউনিয়নের (জেইউজে) আহবায়ক কমিটির নেতা আমিনুর রহমান মামুন ও সাজেদ রহমান, সাংবাদিক ইউনিয়ন যশোরের সভাপতি নূর ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদক এম আইয়ুব এবং ফটোজার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মনিরুজ্জামান মুনির ও সাধারণ সম্পাদক গালিব হাসান পিল্টু। -সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

শেয়ার