এবারও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে বেনাপোলে বসবে দু’বাংলার মিলনমেলা

benapol simanto
এমএ রহিম, বেনাপোল ॥ আন্তর্জাতিক মার্তৃভাষা উপলক্ষে দুই বাংলার মিলন মেলার আয়োজন দেখে বেশ খুশি দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে বেনাপোলে আসা মানুষ। তবে অধিকাংশরা চান দুই বাংলার মধ্যে ভিসা মুক্ত যাতায়াত। শুক্রবার বিকালে বেনাপোল স্থলবন্দর চেকপোষ্ট দিয়ে ভারতে প্রবেশ মুখে আবেগ আপ্লত হয়ে একথা বলেন ঢাকা থেকে আসা পাসপোর্ট যাত্রী সুমনা আক্তার ও শিমুলা রহমান। তারা আরও বলেন ভাষার প্রতি রয়েছে অঢেল শ্রদ্ধা। আমরা শুধুমাত্র এপার ও ওপারে বসবাস করি মাত্র। ভাষা দিবসের দিন বেশী করে মনে পড়ে তাদের। এদিন বেনাপোল চেকপোষ্ট নোম্যান্সল্যান্ডে শহীদ বেদীতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানাবেন দু’দেশের ভাষা প্রেমী মানুষ। মিলে মিশে একাকার হয়ে যাবে বাঙালীর প্রাণ। বাংলাভাষা প্রেমী মানুষের মিলন মেলা বেনাপোলকে উৎসবের নগরীতে পরিণত করবে এমনি প্রত্যাশা করছেন আয়োজকরা।
বেনাপোল পৌরসভা ও বনগা পৌরসভার যৌথ আয়োজনে প্রতিবছরের মতো এবার অমর ২১শে ফেব্রয়ারি আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উদযাপিত হবে। সকল প্রস্ততি শেষ পর্যায়ে। শুক্রবার বিকালে বেনাপোল চেকপোষ্ট এলাকায় নির্র্মিত পৃথক শহীদ বেদী ও শহীদ মঞ্চ এলাকা ঘুরে নির্মাণ কাজ দেখে সন্তোষ প্রকাশ করেন পৌর মেয়ন আশরাফুল আলম লিটন। তিনি দিবসটি পালনে সবার সহযোগিতা কামনা করেন। বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ভারতের পশ্চিমবঙ্গের মুখ্য মন্ত্রী মমতা ব্যানার্জির ২১ অনুষ্ঠানের প্রতি সুদৃষ্টি রয়েছে বলে জানান তিনি। আন্তর্জাতিক চেকপোষ্ট বেনাপোলের মাতৃভাষা দিবসের অনুষ্ঠানে থাকছেন দু’দেশের বিশিষ্টজনরা। অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত অতিথিদের মধ্যে বাংলাদেশের পক্ষে থাকার কথা রয়েছে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহাবুবুল আলম হানিফ, কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য এসএম কামাল হোসেন, জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী ইসমাত আরা সাদেক, যশোরের সংসদ সদস্য শেখ আফিল উদ্দিন, কাজী নাবিল আহম্মেদ, মনিরুল ইসলাম, রণজিত কুমার রায়, যশোর জেলা আ’ লীগের সভাপতি শহিদুল ইসলাম মিলন, সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা চেয়ারম্যান শাহিন চাকলাদার, কেন্দ্রীয় উপ কমিটির সহ সম্পাদক আব্দুল মজিদ, বেনাপোল কাস্টমস কমিশনার এএফএম আব্দুল¬া খান, জেলা প্রশাসক ড. হুমায়ন কবীর, ২৬ ব্যাটালিয়ন বিজিবির অধিনায়ক লে. কর্নেল জাহাঙ্গীর হোসেন, পুলিশ সুপার আনিসুর রহমান ও বেনাপোল বন্দর পরিচালক নিতাই চন্দ্র সেন। অন্যদিকে ভারতের পক্ষে থাকার কথা রয়েছে পশ্চিমবঙ্গ সরকারের খাদ্য সরবরাহ মন্ত্রী জ্যোতি প্রিয় মল্লিক, অনগ্রসর শ্রেণি কল্যাণ মন্ত্রী উপেন্দ্রনাথ বিশ্বাস, বঁনগা লোকসভার সংসদ মমতা ঠাকুর, জেলা পরিষদের রহিমা মল, বঁনগা উত্তর বিধান সভার বিধায়ক বিশ্বজিৎ দাস ও বঁনগা পৌরসভার প্রধান শংকর আঢ্যসহ দু’দেশের প্রখ্যাত লেখক কবি সাহিত্যিক ও গুনি শিল্পিরা। অনুষ্ঠানের সময় সূচি বেনাপোল ইমিগ্রেশনে দুই দেশের আয়োজক কমিটির প্রস্তুতি সভায় নির্ধারণ করেন।

শেয়ার