মহেশপুরের অপহৃত কলেজছাত্র শৈলকুপায় উদ্ধার॥ অপহরণকারী গুলিবিদ্ধ

ari
শৈলকুপা (ঝিনাইদহ) প্রতিনিধি॥ ঝিনাইদহের মহেশপুর উপজেলার লেবুতলা গ্রাম থেকে অপহৃত কলেজ ছাত্র আরিফুল ইসলাম শৈলকুপার শহীদনগর গ্রাম থেকে উদ্ধার হয়েছেন। বুধবার গভীর রাতে পুলিশ তাকে অপহরণকারীদের কবল থেকে উদ্ধার করে। এ সময় অপহরণকারীদের সাথে পুলিশের বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে। পরে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় আশরাফুল ইসলাম নামে এক অপহরণকারীকে আটক করে পুলিশ। অপহৃত আরিফ মহেশপুর উপজেলার লেবুতলা গ্রামের আসাদুল ইসলামের ছেলে ও মহেশপুর ডিগ্রি কলেজের ডিগ্রি দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র।
শৈলকুপা থানার ওসি মহিবুল ইসলাম জানান, গত ১০ ফেব্রুয়ারি আরিফুলকে প্রলোভন দেখিয়ে একই গ্রামের শামিম হোসেন অপহরণ করে শৈলকুপায় নিয়ে আসে। সে শৈলকুপা উপজেলার নলখোলা গ্রামের অপহরণকারী চক্রের কাছে রেখে যায়। পরে অপহরণকারীরা আরিফুলের মায়ের কাছে আড়াই লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে। দর কষাকষি করে ৫০ হাজার টাকায় রফা হয়। বুধবার আরিফুলের মা শৈলকুপা থানাকে অবহিত করে। পুলিশ মুক্তিপণের টাকা প্রদানের কথা বলে ছদ্মবেশে সেখানে যায়। এরপর শহীদনগর গ্রাম থেকে তারা অপহৃতকে উদ্ধার ও অপহরণকারি দলের পান্ডা আশরাফুল ইসলামকে গ্রেফতার করে। রাত ২টার দিকে আশরাফুলকে সাথে নিয়ে পুলিশ অন্য অপহরণকারিদের গ্রেফতার অভিযানে রের হয়। হরিহরা গ্রামে একটি ইটভাটার কাছে পৌঁছালে অপহরণকারীরা আশরাফুলকে ছিনিয়ে নেয়ার উদ্দেশে পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলিবর্ষণ করে। পুলিশও পাল্টা গুলি চালায়। পালানোর সময় আশরাফুলের পায়ে গুলি লাগে। তাকে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে ১টি সার্টারগান উদ্ধার করা হয়। এঘটনায় আবুবকর ও মাহিয়া আলম নামে দুই পুলিশ কনস্টেবল আহত হন। তাদেরকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

শেয়ার