আঙ্কারায় গাড়িবোমা বিস্ফোরণে নিহত ২৮

Firefighters

সমাজের কথা ডেস্ক॥ তুরস্কের রাজধানী আঙ্কারায় গাড়িবোমা বিস্ফোরণে অন্তত ২৮ জন নিহত হয়েছেন, আহত হয়েছেন আরও ৬১ জন। স্থানীয় কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে বিবিসির খবরে বলা হয়, তুরস্কের পার্লামেন্ট ভবন ও সেনা সদর দপ্তরের কাছে বুধবার রাতে ওই বিস্ফোরণ ঘটানো হয়।
সেনা সদস্যদের বহনকারী একটি বাস পাশ দিয়ে যাওয়ার সময় বিস্ফোরকে বোঝাই একটি গাড়িতে বিস্ফোরণ ঘটানো হয়। হতাহতদের মধ্যে বেশ কয়েকজন বেসামরিক নাগরিক রয়েছেন।
তুরস্কের উপ প্রধানমন্ত্রী বেকির বোজদাগ বলেছেন, এটি নিঃসন্দেহে একটি ‘সন্ত্রাসবাদী হামলা’। তবে কোনো পক্ষ এখনও ওই ঘটনার দায় স্বীকার করেনি।
বিবিসির খবরে বলা হয়, বিস্ফোরণের পর ওই এলাকা থেকে ধোঁয়ার কুণ্ডলী উঠতে দেখা যায়। পুরো আঙ্কারা ওই বিস্ফোরণে প্রকম্পিত হয়।
বিস্ফোরণের পরপরই ঘটনাস্থলে ছুটে যায় ২০টি অ্যাম্বুলেন্স। আকাশে নিরাপত্তা বাহিনীর হেলিকপ্টারকে টহলে দেখা যায়।
রয়টার্সের খবরে বলা হয়, ওই বিস্ফোরণের পর তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তায়েপ এরদুয়ান বৃহস্পতিবারের আজারবাইজান সফর বাতিল করেছেন।
এক বিবৃতিতে তিনি বলেছেন, আত্মরক্ষায় অধিকার নিশ্চিত করতে তার দেশ এখন অনেক বেশি দৃঢ় প্রতিজ্ঞ।
সাম্প্রতিক সময়ে তুরস্কে কয়েকটি বড় ধরনের সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা ঘটেছে, যার দায় স্বীকার করেছে ইসলামিক স্টেট।
গত জানুয়ারিতেই ইস্তাম্বুলে এক জঙ্গি হামলায় অন্তত দশজন নিহত হন, যাদের অধিকাংশই জার্মান পর্যটন। তার আগে গতবছর অক্টোবরে আঙ্কারায় কুর্দিদের শান্তি সমাবেশে জোড়া আত্মঘাতী হামলায় শতাধিক লোকের মৃত্যু হয়।
২০১৫ সালের জুলাইয়ে আক্রান্ত হয় সিরিয়া সীমান্তের কাছে কুর্দি অধ্যুষিত শহর সুরুস। ওই আত্মঘাতী হামলায় ৩০ জন নিহত হন।

শেয়ার