যশোরে ৪০ শিশুর একসাথে জন্মদিন পালন

cil
নিজস্ব প্রতিবেদক॥ যশোরে সুবিধা বঞ্চিত ও ঝুঁকিপূর্ণ ৪০ শিশু বুধবার অন্য রকম দিন কাটিয়েছে। বুধবার দুপুরে তাদের একসাথে প্রতীকী জন্মদিন পালন করা হয়েছে। আর এই জন্মদিনে তারা পেয়েছে স্কুল ব্যাগ, বই, খাতা, কলম, পেন্সিলসহ অন্যান্য সামগ্রী। আর এই বর্ণাঢ্য আয়োজনে শিশুরা নেচেছে-গেয়েছে। করেছে কবিতা পাঠ।
বঞ্চিত-অবহেলিত শিশুদের জন্য ওয়ার্ল্ড ভিশন’র যশোর শহরের বারান্দীপাড়া মেঠোপুকুর পাড়ে গড়ে তুলেছে শিশুবান্ধব কেন্দ্র। বর্তমানে সেখানে ৪০ শিশু লেখাপড় করে। এই শিশুদের লেখাপড়া, বিনোদন, খাওয়া-দাওয়া ও পোশাক-পরিচ্ছদ দেয় সংস্থাটি। ১৭ ফেব্রুয়ারি ওই কেন্দ্রের শিশুদের জন্মদিন পালন করা হয়। ছোট শিশু শাহাজামাল শিশু সৌরভ জানায়, লেখাপড়ার শেখা ছাড়াও আমরা গান, কবিতা ও নাচ শিখি। আমাদের দুপুরের খাবারও খেতে দেওয়া হয়। আরেক শিশু সৌরভ জানায়, আমরা প্রতিদিন সেখানে দুপুর ১২ টায় আসি। লেখাপড়া ও বিনোদন করি। ৩টায় বাড়ি যাই।
এদিকে, ওয়ার্ল্ড ভিশনের চাইল্ড সেফটিনেট প্রকল্পের আওতায় শিশুবান্ধন কেন্দ্রটি ২০১২ সাল থেকে পরিচালনা হয় বলে জানালেন প্রজেক্ট অফিসার জাকিয়া সুলতানা। এখানকার শিশুরা একটু বড় হলে তাদের স্কুল-কলেজে পড়ার সুযোগ করে দেওয়া হয়। প্রকল্পের যশোর এরিয়া সমন্বয়কারী মাইকেল মন্ডল বলেন, শিশুরা যাতে সুরক্ষিত থাকে বা বাড়িতে ভালভাবে জীবনযাপন করতে পারে এজন্য তাদের মায়ের প্রশিক্ষণ দিয়ে সেলাই মেশিন প্রদান করা হয়েছে।
অপরদিকে, বুধবার জন্মদিনের উৎসবে প্রধান অতিথির বক্তব্যে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) পারভেজ হাসান বলেন, আজকে আমরা সুবিধা বঞ্চিত হিসেবে যাদের জন্মদিনের কেক কাটলাম। তারাই একদিন আমাদের আসনে থাকবে। পৃথিবীর বেশিরভাগ মহান ব্যক্তির ইতিহাস তাই বলে। ফলে এই শিশুদের অবহেলা না করে তাদের প্রতিভা বিকাশের পথ সুগম করতে হবে।
অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, কমিউনিটি বেইজড চাইল্ড ওয়েলরিং কমিটির সভাপতি রাজিয়া খাতুন, সাধারণ সম্পাদক কাজী সোহারাব হোসেন, সদস্য নজরুল ইসলাম, রেহেনা পারভীন, গুলশানয়ারা, সিডিএফ এর সমন্বয়কারী আশফাকুর রহমান মিহির প্রমুখ।

শেয়ার