বাংলাদেশের মেয়েদের লক্ষ্য সেরা ৭

wom
সমাজের কথা ডেস্ক॥ বাছাইপর্ব পেরিয়ে প্রথমবার টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ খেলার যোগ্যতা অর্জন করায় রোমাঞ্চিত বাংলাদেশ নারী ক্রিকেট দল। বিশ্বকাপে দারুণ কিছু করে মেয়েদের র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষ সাত-আটে থাকতে চায় দল, জানালেন অধিনায়ক জাহানারা আলম।
মঙ্গলবার মিরপুর শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে বিশ্বকাপে বাংলাদেশের মেয়েদের দলের স্পন্সরশিপ ঘোষণা ও বিশ্বকাপ জার্সি উন্মোচন করা হয়। আগামী মাসে ভারতে হতে যাওয়া এই বিশ্বকাপে মেয়েদের দলের স্পন্সর মৌসুমি ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড, জার্সিতে খচিত থাকবে এই প্রতিষ্ঠানের ব্র্যান্ড ‘কিউট’।
২০১৪ সালে দেশের মাটিতে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে খেলেছিল বাংলাদেশের মেয়েরা। তবে স্বাগতিক হওয়ায় সেবার খেলেছিল সরাসরি। এবারই প্রথম বিশ্বকাপে খেলছে তারা বাছাইপর্ব উতরে। গত নভেম্বর-ডিসেম্বরে থাইল্যান্ডে অনুষ্ঠিত বিশ্বকাপ বাছাইয়ে রানার্সআপ হয়েছিল বাংলাদেশ।
ওই বাছাইপর্ব থেকেই বাংলাদেশ দলকে নেতৃত্ব দিচ্ছেন জাহানারা। জার্সি উন্মোচন অনুষ্ঠানে অধিনায়ক জানালেন দলের রোমাঞ্চ ও লক্ষ্যের কথা।
“গতবার আমরা স্বাগতিক হিসেবে খেলেছিলাম, এবার বাছাই পর্ব পেরিয়ে নিজেদের যোগ্যতা বলেই খেলছি। আমরা সবাই দারুণ গর্বিত। বিশ্বকাপে আমরা ভালো কিছু করতে চাই। আমাদের লক্ষ্য মেয়েদের র‌্যাঙ্কিংয়ে সাত-আটের মধ্যে থাকা।”
আইসিসি উইমেন’স চ্যাম্পিয়নশিপে এখন ৪৭ রেটিং পয়েন্ট নিয়ে নয় নম্বরে আছে বাংলাদেশ। ৭১ পয়েন্ট নিয়ে আটে শ্রীলঙ্কা।
গত ৫ ডিসেম্বর বাছাইপর্ব শেষ হওয়ার পর আর কোনো ম্যাচ খেলেনি বাংলাদেশের মেয়েরা। বিশ্বকাপের আগেও তেমন কোনো ম্যাচ খেলার সুযোগ নেই। বিকেএসপি অনুশীলন ক্যাম্প চলার সময় কয়েকটি ম্যাচ খেলবে তারা অনূর্ধ্ব-১৬, অনূর্ধ্ব-১৭ দলগুলির সঙ্গে। এরপর ভারতে গিয়ে দুটি আনুষ্ঠানিক প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবে।
তবে ম্যাচ অনুশীলনের ঘাটতিকে খুব বড় সমস্যা বলে মানছেন না জাহানারা।
“বিসিবি চেষ্টা করেছিল ম্যাচ আয়োজনের, কিন্তু আর কোনো দেশ এখন ফ্রি নেই। বিশ্বকাপে গিয়ে তো আমরা দুটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবই। আশা করি সেটাই যথেষ্ট হবে। আমরা চেষ্টা করব বিশ্বকাপে ভালো ক্রিকেট খেলে দেশের জন্য কিছু করতে।”
বিশ্বকাপে বাংলাদেশের মেয়েরা ‘বি’ গ্রুপে খেলবে ভারত, পাকিস্তান, ইংল্যান্ড ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের সঙ্গে। মূল টুর্নামেন্টের আগে বেঙ্গালুরুতে দুটি প্রস্তুতি ম্যাচে বাংলাদেশের মেয়েদের প্রতিপক্ষ শ্রীলঙ্কা ও আয়ারল্যান্ড।
৮ মার্চ বেঙ্গালুরুর উদ্দেশে দেশ ছাড়ার কথা মেয়েদের।

শেয়ার