এবার খাঁচা থেকে পালালো সেই চিতাবাঘ

cita
সমাজের কথা ডেস্ক॥ ভারতের ব্যাঙ্গালুরের একটি স্কুলে যে পুরুষ চিতাবাঘটি হামলা চালিয়ে ছয়জনকে আহত করেছিল সেটি এবার খাঁচা থেকে পালিয়ে গেছে বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ। স্থানীয় সংবাদমাধ্যমগুলো মঙ্গলবার এ খবর দিলেও চিতাবাঘটি রোববার খাঁচা থেকে পালিয়ে যায়। এর আগে গত ৭ ফেব্রুয়ারি ব্যাঙ্গালুরের একটি স্কুলে পুরুষ চিতাটির হানায় ছয়জন আহত হয়। পরে তাকে আটক করে চিকিৎসার জন্য বানারঘাট ন্যাশনাল পার্কে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানেই গত রোববার সুযোগ বুঝে এটি খাঁচা থেকে পালিয়ে গেছে। তবে এ ঘটনায় আতঙ্কের কিছু নেই বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ। ওই চিতা বাঘটির বয়স ৮ বছর।
বানারঘাট পার্কের কর্মকর্তারা বলছেন, সহকারীরা খাবার দিতে যখন চিতাটির খাঁচায় ঢুকছিলেন, তখনই হয়তো দরজা খোলা পেয়ে এটি পালিয়ে যায়। কর্ণাটক প্রদেশের বণ্যপ্রাণী বিষয়ক প্রধান রাভি রাল্ফ বিবিসিকে বলেন, পার্কের কর্মকর্তারা একেক সময় একেক মন্তব্য করছেন। সুতরাং চিতাটি ঠিক কিভাবে পালিয়েছে সে বিষয়ে সঠিক বলা যাচ্ছে না।
এ বিষয়ে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে এবং দু-তিনদিনের মধ্যেই ঘটনা সম্পর্কে জানা যাবে। আট বছরের ওই চিতাটি ব্যাঙ্গালোরের কুন্দালাহালির ওই স্কুলে হানা দেওয়ার এক সপ্তাহের মধ্যেই চিতাবাঘটি আবার পালালো। ওই স্কুলে হামলায় আহতদের মধ্যে বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ বিষয়ক একজন বিজ্ঞানী এবং বন বিভাগের কর্মকর্তাও ছিলেন।
প্রায় ১২ ঘন্টার চেষ্টায় চিতাবাঘটিকে ধরা সম্ভব হয়েছিল। প্রাণীটির ওপর চেতনা নাশক ওষুধ প্রয়োগেই তাকে ধরা সম্ভব হয়। এ ঘটনায় সতর্কতার অংশ হিসেবে শহরের শতাধিক স্কুল বন্ধ ঘোষণা করে কর্তৃপক্ষ।

শেয়ার