অগ্রণী ব্যাংক রেলবাজার শাখা ॥ গ্রাহকের কয়েনের ব্যাগ ছুড়ে ফেলা বিষয়ে ব্যাংক কর্মকর্তার ভিন্নমত

bank
‘গ্রাহকের কয়েনের ব্যাগ রাস্তায় ছুড়ে ফেললেন ব্যাংক কর্মকর্তা’ শীর্ষক সংবাদের ভিন্নমত জানিয়েছেন যশোর রেলবাজার শাখার অগ্রণী ব্যাংকে সিনিয়র প্রিন্সিপাল অফিসার মহিতোষ কুমার মল্লিক। বৃহস্পতিবার এক বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে তিনি এই ভিন্নমত জানান।
বিজ্ঞপ্তিতে তিনি জানান, বাংলাদেশ ব্যাংকের নিয়মানুযায়ী ব্যাংকের একটি শাখায় সর্বোচ্চ ১০ হাজার টাকার কয়েন মজুদ রাখা যায়। অগ্রণী ব্যাংক যশোর রেলবাজার শাখায় বর্তমানে ছয় হাজার টাকার কয়েন মজুদ থাকায় আমির অয়েল মিলের সত্ত্বাধিকারী তৌহিদুল ইসলামের ১৬ হাজার ৫০০ টাকার কয়েন গ্রহণ করা সম্ভব হয়নি। এজন্য তাকে চার হাজার টাকার কয়েন জমা দিতে বলা হয়েছিল। কিন্তু তা না দিয়ে তিনি সব কয়েন রাস্তায় ফেলে দেন। ব্যাংকের কোন কর্মকর্তা কয়েন ছুড়ে ফেলার সাথে জড়িত নন।-সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

শেয়ার