রেলগেট এলাকার মারামারি মামলায় ত্রুটিপূর্ণ চার্জশিট দেওয়ার অভিযোগ

mamlamamla
নিজস্ব প্রতিবেদক॥ যশোর শহরের রেলগেট এলাকার একটি মারামারি মামলায় ত্রুটিপূর্ণ চার্জশিট দিয়েছে পুলিশ। আসামিদের কাছ থেকে সুবিধা নিয়ে এ চার্জশিট দেয়া হয়েছে দাবি করেছেন মামলার বাদী আব্দুর রাজ্জাক। এদিকে, আগামীকাল আদালতে ত্রুটিপূর্ণ এ চার্জশিটের নারাজি আবেদন করবেন বলেও তিনি জানিয়েছেন।
এ মামলার বাদী রেলগেট এলাকার আব্দুর রাজ্জাক বলেন, রেলগেট পশ্চিমপাড়ার মৃত সইজুদ্দিনের ছেলে আবুল বাসার একজন ভূমিদস্যু, মামলাবাজ এবং জঙ্গিবাদ সংগঠনের সক্রিয় সদস্য। বেশ কিছু দিন ধরে জমিজমা সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে আবুল বাসারের সাথে আব্দুর রাজ্জাকের একাধিক মামলা চলে আসছিল। এরই জের ধরে গত বছরের ৩ জুলাই দুপুরে আবুল বাসার তার সহযোগী আরো কিছু সন্ত্রাসীদের সাথে নিয়ে আব্দুর রাজ্জাকের রেলগেটস্থ ফার্নিচারের দোকানে মামলা চালায়। এসময় বাসার তার সহযোগীদের নিয়ে আব্দুর রাজ্জাককে মারপিট করে হাত ও পায়ের হাড় ভেঙ্গে দেয়। এছাড়া দোকান থেকে টাকা ও পয়সা লুটপাট করে নেয়। আব্দুর রাজ্জাকের চিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এলে বাসাররা পালিয়ে চলে যায়। স্থানীয় লোকজন আব্দুর রাজ্জাককে উদ্ধার করে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে। বাসারদের মারপিটে আব্দুর রাজ্জাকের পায়ের হাড় ভেঙ্গে গেছে। এঘটনায় আব্দুর রাজ্জাক বাদী হয়ে বাসারসহ ৬ জনের নামে কোতোয়ালি মডেল থানায় মামলা করেন। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা কোতোয়ালি থানার এসআই তৌহিদুল ইসলাম আসামি আবুল বাসারের দ্বারা প্রভাবিত হয়ে গত ১৯ নভেম্বর আদালতে ত্রুটিপূর্ণ একটি চার্জশিট দাখিল করেন। ওই চার্জশিটে এজাহারভুক্ত আসামি আবুল বাসারের মেয়ের জামাই জহিরকে অব্যাহতি চাওয়া হয়েছে। একই সাথে উল্লেখ করা হয়েছে, চিকিৎসা সনদ না পাওয়ায় মামলায় ৩২৬ ধারা থেকে আসামিদের অব্যাহতি চাওয়া হয়েছে। এদিকে, গত ১৯ নভেম্বর চার্জশিট দাখিল করা হয়। আর ১৯ আগস্ট হাসপাতাল থেকে চিকিৎসা সনদ গ্রহণ করেন তদন্তকারী কর্মকর্তা। প্রায় তিন মাস আগে চিকিৎসা সনদ হাতে পেলেও সেটাকে গোপন রেখে আসামিদের দ্বারা প্রভাবিত হয়ে এ চার্জশিট দেয়া হয়েছে বলে দাবি করেছেন মামলা বাদী এবং ভুক্তভোগী আব্দুর রাজ্জাক।
এদিকে ত্রুটিপূর্ণ এ চার্জশিটের বিরুদ্ধে আদালতে নারাজি আবেদন করবেন বলে জানিয়েছেন ভুক্তেভোগী আব্দুর রাজ্জাক। এব্যাপারে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই তৌহিদুল ইসলাম আসামিদের কাছ থেকে প্রভাবিত হওয়ার কথা অস্বীকার করেন।

শেয়ার