যশোরে লিগ্যাল এইডের সেমিনারে বক্তারা॥ গ্রাম পর্যায়ে সরকারি আইনি সেবা পৌছে দিতে হবে

semi
লাবুয়াল হক রিপন॥
যশোরে সরকারি আইনি সহায়তা কার্যক্রমের প্রচার, প্রসার ও শক্তিশালী করণের লক্ষ্যে জেলা লিগ্যাল এইড অফিসের উদ্যোগে সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার জেলা জজ আদালতের সম্মেলন কক্ষে এ সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়। সেমিনারে স্বামীর নির্যাতনের শিকার সীমা খাতুন, আসমা খাতুন, নাসরিন সুলতানা ও ঝর্না খাতুন নামে চার নারী উপস্থিত ছিলেন। যারা সরকারি আইনি সহায়তা পেয়ে নির্যাতনের বিরুদ্ধে দাঁড়িয়েছেন।
যশোর জেলা আইনগত সহায়তা প্রদান কমিটির চেয়ারম্যান এবং জেলা ও দায়রা জজ ইসরাইল হোসেনের সভাপতিত্বে সেমিনারে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আইন বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মোস্তাফিজুর রহমান। সেমিনারে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন আইন বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের উপ-সচিব শেখ হুমায়ুন কবীর, ঢাকার লিগ্যাল এইড কর্মকর্তা সিনিয়র সহকারী জজ মাসুদা ইয়াছমিন, নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের জেলা জজ অমিত কুমার দে, স্পেশাল জজ নিতাই চন্দ্র সাহা, চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট রফিকুল ইসলাম, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক সাবিনা ইয়াসমিন, পুলিশ সুপার আনিসুর রহমান, অভয়নগরের উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সিফাত মেহনাজ, মণিরামপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কামরুল হাসান, পাবলিক প্রসিকিউটর রফিকুল ইসলাম পিটু, গভমেন্ট প্লিডার (জিপি) অ্যাডভোকেট সোহেল শামিম, নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের পিপি অ্যাডভোকেট ইদ্রিস আলী, যশোর জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি কাজী আবদুস শহীদ লাল, সাধারণ সম্পাদক আব্দুল গফুর, প্রেসকাব যশোরের সভাপতি জাহিদ হাসান টুকুন প্রমুখ। সেমিনারে যশোরের প্রতিটি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এবং জেলা পর্যায়ের বিভিন্ন দপ্তরের শীর্ষ কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে আইন বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, জাতীয় আইনগত সহায়তা সংস্থার মাধ্যমে দেশের ৬১টি জেলায় সাধারণ, গরীব ও খেটে খাওয়া মানুষেরা সেবা পাচ্ছেন। সবার জন্য সমান আইন নিশ্চিত করতে সরকারি এ সেবা আমাদের গ্রামে গঞ্জে পৌছে দিতে হবে। তিনি আরো বলেন, যশোরের মামলা জট খুলতে বিচারক সংকট সমাধানের উদ্যোগ নেয়া হবে।
অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক সাবিনা ইয়াছমিন বলেন, সরকারিভাবে আইনি সহায়তা দেয়ার ব্যাপারে ‘অপরাজিতা যশোর’ নামে একটি সেল গঠন করা হয়েছে। ওই সেলে মোবাইলের মাধ্যমে গ্রামাঞ্চলের হতদরিদ্র এবং অশিক্ষিত মানুষেরা সেবা নিতে পারবেন। তিনি আরো বলেন, এ সেবাটি জনগণের কাছাকাছি পৌছে দিতে প্রতিটি ইউনিয়ন পরিষদে দুইজন করে উদ্যোক্তা নিয়োগ দেয়া হয়েছে।
জাতীয় আইন সহায়তা প্রদান সংস্থা যশোরের উদ্দোগে অনুষ্ঠিত সেমিনারে হতদরিদ্র, অসহায় মানুষদের আইনি সহায়তা জেলার সকল উপজেলা এবং ইউনিয়ন পর্যায়ে পৌছে দেয়ার ব্যাপারে বিস্তারিত আলোচনা হয়।

শেয়ার