চৌগাছার স্বাস্থ্য কর্মকর্তার স্ট্যান্ড রিলিজের ঘটনা নিয়ে এলাকায় তোলপাড়

standrilized
নিজস্ব প্রতিবেদক, চৌগাছা॥ যশোরের চৌগাছা উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা.আব্দুর রাজ্জাককে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে স্টান্ড রিলিজের ঘটনা নিয়ে দৈনিক সমাজের কথাসহ বিভিন্ন সংবাদপত্রে খবর প্রকাশের পর উপজেলাজুড়ে তোলপাড় শুরু হয়েছে।অপরদিকে নতুন উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাঃ ইমদাদুল হক রাজুর যোগদান নিয়ে টানা পোড়েন দেখা দিয়েছে।
জানা যায়,চৌগাছা উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাক্তার আব্দুর রাজ্জাককে গত ২৫ জানুয়ারি স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পরিচালক প্রশাসনের স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে আদেশের মাধ্যমে চৌগাছা থেকে মংলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লে¬ক্সে সান্ডরিলিজ করা হয়েছে। তাকে ৩০ জানুয়ারির মধ্যে কর্মস্থলে যোগদান করার কথা বলা হয়েছে। পাশাপাশি ২৭ জানুয়ারি যশোর সিভিল সার্জন অফিসের কর্মকর্তা ডাঃ এমদাদুল হক রাজুকে চৌগাছা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা পদে যোগদানের জন্য নির্দেশ দেয়া হয়েছে। তবে নতুন স্বাস্থ্য কর্মকর্তা হিসেবে ডাঃ ইমদাদুল হক রাজুর যোগদানের বিষয়টি নিয়ে টানাপোড়েন দেখা দিয়েছে। শুক্রবার পর্যন্ত যশোর সিভিল সার্জন অফিস থেকে তিনি ছাড়পত্র গ্রহণ করেননি বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানাগেছে। এদিকে চৌগাছা উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাক্তার আব্দুর রাজ্জাক তার বদলী ঠেকাতে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় ও অধিদপ্তরে জোর দেনদরবার চালিয়ে যাচ্ছেন। এদিকে এই ঘটনা নিয়ে বিভিন্ন সংবাদপত্রে খবর প্রকাশের পর এলাকাজুড়ে ব্যাপক তোলপাড় শুরু হয়েছে। শুক্রবার উপজেলার হাটে বাজারে চায়ের স্টলে বহুল আলোচিত ডাক্তার আব্দুর রাজ্জাককে ঘিরে অলোচনা সমালোচনা বয়ে যায়। স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে তাকে বদলীর পর উপজেলার সচেতন মহল ও হাসপাতালের অন্যান্য চিকিৎসক,কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের মধ্যে স্বস্তি লক্ষ্য করা গেছে।
এ বিষয়ে উপজেলাবাসীর অভিমত বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা স্বাস্থ্য সেবার প্রতি গুরুত্ব দিয়ে উন্নয়নমুখী ভূমিকা রেখে যাচ্ছেন। স্থানীয় সংসদ সদস্য,জনপ্রতিনিধি ও স্বাস্থ্য বিভাগের সম্মিলিত প্রচেষ্টায় আবারও হাসপাতালের বিগত দিনের মডেল কার্যক্রম ফিরে আসবে বলে চৌগাছাবাসী মনে করছেন।

শেয়ার