যশোর নার্সিং ইনস্টিটিউটের শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তা বাড়ানোর উদ্যোগ

lifi
নিজস্ব প্রতিবেদক॥ যশোর নার্সিং ইনস্টিটিউটের হোস্টেলের শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তা বাড়ানো উদ্যোগ নিয়েছেন হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। গত দু’দফা ইনস্টিটিউটে চুরি ও শিক্ষার্থীদের উপরে কর্মচারী ও বহিরাগতদের হামলার পর শিক্ষার্থীদের দাবি প্রেক্ষিতে সংশ্লিষ্টরা এমন ব্যবস্থা নেওয়া শুরু করেছেন। এরই অংশ হিসেবে সোমবার প্রতিষ্ঠানের চারপাশে বসানো হয়েছে হাই-পাওয়ারের লাইট। যা ক্যাম্পাসক আলোকিত করে রাখবে।
ইনস্টিটিউট সূত্র মতে, শনিবার রাত আড়াইটার দিকে হোস্টেলের জানালা লক্ষ্য করে অজ্ঞাত ১০/১২ জন ইট নিক্ষেপ করে। তখন হোস্টেলে থাকা সকল শিক্ষার্থীরা চিৎকার করলে হোস্টেলে থাকা নির্মাণ শ্রমিকরা বেরিয়ে আসলে তারা পালিয়ে যায়। এর আগে বৃহস্পতিবার মধ্যরাতে যশোর নার্সিং ইনস্টিটিউটের মূল্যবান মালামাল পিকআপে তুলে পালানোর সময় শিক্ষার্থীদের সহযোগিতায় আটক হন কর্মচারী আশিষ বিশ্বাস ও আবু বক্কার সিদ্দিক। এই চুরির ঘটনা প্রতিরোধ করতে গিয়ে প্রতিষ্ঠানের ৯ শিক্ষার্থী জখম হয়ে হাসপাতাল থেকে চিকিৎসা নেয়। কিন্তু ইনস্টিটিউট ও হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তার জন্য কোন ব্যবস্থা গ্রহণ না করায় শিক্ষার্থীরা রোববার সকালে ডিউটি ও ক্লাস বর্জন করে নিরাপত্তার দাবিতে মিছিলসহকারে হাসপাতালের তত্তাবধায়কের কার্যালয় ঘেরাও করে। তাদের দাবির প্রেক্ষিতে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ নার্সিং প্রতিষ্ঠানের চারপাশে লাইট লাগিয়ে আলোকিত করেছেন। এছাড়া কোতোয়ালি থানার একটি টহল টিম রাতে তাদের নিরাপত্তার জন্য দায়িত্ব পালন করবেন। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন প্রতিষ্ঠানের ইনচার্জ সেলিনা ইয়াসমিন পুস্প।

শেয়ার