এক বছরে ১২০১টি ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা॥ সাতক্ষীরায় বিভিন্ন মেয়াদে ২৭৯৫ জনকে সাজা ও জরিমানা আদায়

vrammoman adalot
সিরাজুল ইসলাম, সাতক্ষীরা ॥ সাতক্ষীরায় জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে গত এক বছরে এক হাজার ২০১টি ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালিত হয়েছে। এ সময়ের মধ্যে ২ হাজার ৯টি মামলা দায়ের করা হয়। মামলায় ২ হাজার ৭৯৫ জনকে দোষী সাব্যস্ত করে বিভিন্ন মেয়াদে সাজা প্রদান ও আর্থিক জরিমানা করে ভ্রাম্যমান আদালত। জরিমানার পরিমাণ ৩৮ লাখ ২২ হাজার ৪২৫ টাকা বলে জানা গেছে।
সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসনের দায়িত্বশীল সুত্র জানিয়েছে, গত এক বছরে জেলার ৭টি উপজেলার বিভিন্ন স্থানে মাদক, ইভটিজিং, অবৈধ যানবাহন, কাগজপত্র বিহীন মোটরসাইকেল, ইটভাটা, হোটেল রেস্তোরা, অবৈধ ক্লিনিক, ধুমপানসহ বিভিন্ন অপরাধ দমনে জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে এক হাজার ২০১টি ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালানা করা হয়। এসময় ভ্রাম্যমাণ আদালত এর পক্ষ থেকে মামলা দায়ের করা হয় ২ হাজার ৯টি। এসব মামলার মধ্যে ইভটিজিংসহ অন্যান্য ঘটনায় এক হাজার জনকে বিভিন্ন মেয়াদে সাজা প্রদান করা হয়। পাশাপাশি ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের কাছ থেকে জরিমানা আদায় করা হয়েছে ৩৮ লাখ ২২ হাজার ৪২৫ টাকা। সূত্র আরও জানায়, গত বছরের জানুয়ারি মাসে মোট ১০৩টি ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হয়। এসময় মামলা দায়ের করা হয় ১৫৪টি। এসব মামলায় ৯১ জনকে বিভিন্ন মেয়াদে সাজা প্রদান করা হয় এবং ১১৮ জনের কাছ থেকে জরিমানা আদায় করা হয় ২ লাখ ১৬ হাজার টাকা। ফেব্র“য়ারি মাসে ১০৮টি ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে মামলা করা হয় ১৫৪টি। জেল ও জরিমানা প্রদান করা হয় ১৮৬ জনকে। এসময় জরিমানা আদায় করা হয় ১ লাখ ৬৮ হাজার ৮২৫ টাকা। মার্চ মাসে ১৫৬টি ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হয়। মামলা করা হয় ৩১৫টি। এসব মামলায় ৩৮৮ জনকে সাজা প্রদান করা হয়েছে। জরিমানার নগদ টাকা আদায় করা হয়েছে ৩ লাখ ৭৫ হাজার টাকা। এপ্রিল মাসে ১৭৮টি অভিযান পরিচালনা করা হয়। মামলা করা হয়েছে ৩৮৬টি। সাজা প্রদান করা হয়েছে ৫০৬ জনকে। জরিমানা আদায় করা হয় ৭ লাখ ৭৬ হাজার ৭০০ টাকা। মে মাসে ১৭৭টি আদালত পরিচালনা করে মামলা করা হয় ৪৯৯টি। এ সময় সাজা প্রদান করা হয় ৭০৪ জনকে। জরিমানা আদায় করা হয়েছে ৬ লাখ ১৬ হাজার ৯৫০ টাকা। জুন মাসে ৫২টি আদালত পরিচালনা করে ৮১টি মামলা দায়েরের পাশাপাশি সাজা প্রদান করা হয় ৮৫ জনকে। জরিমানা আদায় করা হয় ২ লাখ ৮৭ হাজার ১০০টাকা। জুলাই মাসে ৫৫টি ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হয়। মামলা করা হয় ৭৮টি। সাজা প্রদান করা হয় ৮৭ জনকে। জরিমানা আদায় করা হয় ১ লাখ ৭০ হাজার ১৫০ টাকা। আগস্ট মাসে ১০৪টি আদালত পরিচালনা করা হয়। মামলা করা হয় ১৭৫টি। সাজা প্রদান করা হয় ২৩৮ জনকে। জরিমানা আদায় করা হয়ছে ২ লাখ ৮৮ হাজার ১০০টাকা। সেপ্টেম্বর মাসে ১১১টি ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হয়। মামলা করা হয় ২২৬টি। সাজা প্রদান করা হয় ২৩৪ জনকে। জরিমানার টাকা আদায় করা হয় ৩ লাখ ৩১ হাজার ২০০টাকা। অক্টোবর মাসে ৬১টি ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হয়। মামলা করা হয় ৮০টি। সাজা প্রদান করা হয় ১০১ জনকে। জরিমানা আদায় করা হয় এক লাখ ৫৬ হাজার টাকা। নভেম্বর মাসে ৬৫টি আদালত পরিচালনা করে মামলা করা হয় ১২২টি। সাজা প্রদান করা হয় ১৬৯ জনকে। জরিমানা আদায় করা হয় এক লাখ ৫৫ হাজার টাকা এবং ডিসেম্বর মাসে ৬৪টি আদালত পরিচালনা করে মামলা দায়ের করা হয় ৯২টি। এ সময় সাজা প্রদান করা হয় ৯৮ জনকে। জরিমানা আদায় করা হয় এক লাখ ২৭ হাজার টাকা। এছাড়াও বিভিন্ন ঘটনায় বেশ কিছু ব্যক্তিতে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদন্ড প্রদান করে ভ্রাম্যমাণ আদালত।
সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক নাজমুল আহসান জানান, জেলায় ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে বিভিন্ন ধরনের অপরাধ আগের তুলনায় অনেক কমে এসেছে। ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচার করে তাৎক্ষণিক সাজা প্রদানের সুফল সাধারণ জনগণ ইতোমধ্যে পেতে শুরু করেছেন। বিশেষ করে এই জেলায় মাদকের ভয়াবহতা অনেক কমেছে। এই ধারা অব্যাহত রাখতে বিগত বছরের ন্যায় চলতি বছরেও বিভিন্ন অপরাধমূলক কার্যক্রম দমনে আরো বেশি ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হবে।

শেয়ার