পেট কেটে নবজাতক চুরির চেষ্ঠা!

Baby

সমাজের কথা ডেস্ক॥
নিজের কোলজুড়ে আসছে আদরের ধন, সোনামানিক। তাই সব প্রস্তুতি নিয়ে রাখছিলেন অন্তঃসত্ত্বা। অনলাইনে বাচ্চাদের পোশাক বিক্রির বিজ্ঞাপন দেখে গিয়েছিলেন সেখানে আগত সন্তানের জন্য তা কিনতে। কিন্তু সেখানেই তার জন্য অপেক্ষা করছিল এক ভয়ঙ্কর ঘটনা।
বিজ্ঞাপনে দেয়া ঠিকানায় পৌঁছতেই অপরিচিতা এক নারী অন্তঃসত্ত্বাকে হঠাৎ করেই পেটে আঘাত করে। এতে অন্তঃসত্ত্বা অজ্ঞান হয়ে পড়লে তার পেট কেটে নবজাতককে বের করে নেয় সেই অপরিচিতা নারী। এমন ঘটনাই ঘটেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের কলোরাডোর লংমন্ট এলাকায়।
পরে অভিযুক্ত ৩৪ বছর বয়সী ওই নারীকে গ্রেপ্তার করে স্থানীয় পুলিশ। আর ওই নারীই অনলাইনে শিশুদের পোশাক বিক্রির বিজ্ঞাপন দিয়েছিল। তা দেখেই ২৬ বছর বয়সী সাত মাসের অন্তঃসত্ত্বা ওই নারী গিয়েছিলেন তার আগত সন্তানের জন্য পোশাক কিনতে।
জানা গেছে, ঘটনাস্থলে যাওয়ার পরপরই তাকে মারধর করা হয় এবং পেটে আঘাত করে অভিযুক্ত ওই নারী। তারপর অন্তঃসত্ত্বার চিৎকার শোনতে পেয়ে এলাকাবাসী পুলিশকে খবর দেয়। পুলিশ এসে ওই নারীকে উদ্ধার করে দ্রুত হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার ব্যবস্থা করে। সেখানেই তার চিকিৎসা চলছে। তবে তার নবজাতককে বাঁচাতে পারেনি চিকিৎসকরা।
এ ঘটনায় অভিযুক্ত নারীকে ঘটনাস্থল থেকে আটক করে পুলিশ। ধারণা করা হচ্ছে ওই নারী মানসিক ভারসাম্যহীন। তবে অভিযুক্তের বিরুদ্ধে খুনের চেষ্টা, শারীরিক নির্যাতন ও শিশু হত্যার মামলা করা হয়েছে।
মজার বিষয় হচ্ছে- অন্তঃসত্ত্বা ও অভিযুক্ত নারী একে অপরকে চিনতেন না। যদিও পুলিশ দু’জনের কারো নাম পরিচয় প্রকাশ করেনি।

শেয়ার