আনুগত্য মেনে নিল আইএস

boko

সমাজের কথা ডেস্ক॥

পশ্চিম আফ্রিকার জঙ্গি সংগঠন বোকো হারামের আনুগত্য গ্রহণ করেছে ইরাক ও সিরিয়ায় জঙ্গি সংগঠন ইসলামিক স্টেট (আইএস)। সম্প্রতি প্রকাশিত এক অডিও বার্তায় আনুগত্য গ্রহণের বিষয়টি জানায় আইএস।
এর আগে গত শনিবার (০৭ মার্চ) রাতে প্রকাশিত এক অডিও বার্তায় আইএস’র প্রতি সরাসরি আনুগত্য ঘোষণা করে বোকো হারাম।
অডিও বার্তাটি বোকো হারাম প্রধান আবুবকর শেকাউরের বলে সে সময় দাবি করা হয়। ওই অডিও বার্তায় বলা হয়, আমরা খেলাফত শাসনের প্রতি আমাদের আনুগত্য ঘোষণা করলাম… শুনবো ও মান্য করবো কঠিন এবং সমৃদ্ধির সময়ে।
এরই উত্তরে আনুগত্য গ্রহণ করে সম্প্রতি আইএস নতুন আরেকটি অডিও বার্তা প্রকাশ করে।
নতুন অডিও বার্তায় আইএস’র পক্ষে বলা হয়, ইসলামী খেলাফত প্রতিষ্ঠায় পশ্চিম আফ্রিকা পর্যন্ত আমাদের লক্ষ্য।
তবে নতুন এ অডিও বার্তাটি আইএস’র কি-না সে বিষয়ে নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

এর আগে মিশর, আলজেরিয়া, ইয়েমেন, সৌদি আরব ও লিবিয়ার জিহাদিদের সমর্থন গ্রহণ করে আইএস।
মোহাম্মদ ইউসুফের নেতৃত্বে ২০০২ সালে বোকো হারামের যাত্রা শুরু। এরপর কালক্রমে সংগঠনটির নেতৃত্বে আসেন আবু বকর শেকাউ। ২০০৯ সাল থেকেই বিশেষত সংগঠনটি ভয়ঙ্কর হয়ে ওঠে।
জাতিসংঘের এক হিসেবে বলা হয়, ২০০৯-২০১৪ সাল পর্যন্ত পাঁচ বছরে পাঁচ হাজারের বেশি মানুষ হত্যা করেছে বোকো হারাম।
অপরদিকে, ২০০৬ সালে ইসলামিক স্টেটের যাত্রা শুরু হলেও এর জন্ম ১৯৯৯ সালে, আবু মুসাব আল-জারকাউইর হাতে জামা’আত আল-তাওহিদ ওয়াল-জিহাদ নামক একটি জিহাদি সংগঠন প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে। বর্তমানে সংগঠনটির নেতৃত্বে রয়েছেন আবু বকর আল-বাগদাদি।
শুধুমাত্র ২০১৪ সালেই সংগঠনটির হাতে ৪ হাজারের বেশি মানুষ নিহত হন বলে জানিয়েছে জাতিসংঘসহ মানবাধিকার সংস্থাগুলো।

শেয়ার