মহারাষ্ট্রে গরুর মাংস নিষিদ্ধ: খুশি নয় বলিউড

Ravina
সমাজের কথা ডেস্ক॥

ভারতের মহারাষ্ট্রে গরুর মাংস নিষিদ্ধ করার সরকারি সিদ্ধান্তে খুব একটা খুশি নয় মু্ম্বাইয়ের বিনোদন জগত। এই সিদ্ধান্তকে ব্যক্তি স্বাধীনতায় হস্তক্ষেপ হিসেবেই দেখছেন অনেক বলিউড তারকা।

কেউ গরুর মাংস বিক্রি করা কিংবা খাওয়ার সময় ধরা পড়লে ১০ হাজার রুপি জরিমানা ও পাঁচ বছরের কারাদণ্ড ভোগ করতে হবে বলে সরকারি নিয়ম জারি করা হয়েছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এই বিষয়ে আলোচনার ঝড় উঠেছে। মাইক্রোব্লগিং সাইট টুইটারে অনেকেই নিজের ক্ষুব্ধ মত ব্যক্ত করেছেন।

রাভিনা ট্যান্ডন লিখেছেন, “গরুর মাংস ইস্যুতে আমার একমাত্র মত হলো, এটা চাপিয়ে দেওয়া উচিৎ নয়, এটা ঐচ্ছিক হওয়া উচিৎ…খাবো না খাবো না, এটা একটা ব্যক্তিগত পছন্দের ব্যাপার।”

আয়ুশ্মান খুরানা ক্ষোভ প্রকাশ করে লেখেন, “গরুর মাংস বাদ!# দুর্বৃত্ত”

ভির দাস বলেন, “প্রিয় সরকার, গরুর মাংসের সঙ্গে দাঁতও নিষিদ্ধ করুন। আমরা সবাই সবজির শরবত খেয়ে বেঁচে থাকতে পারবো এবং রাজনীতিবিদরাও উস্কানিমূলক বক্তব্য দিতে পারবে না।”

উদয় চোপড়া টুইট করেন, “গরুর মাংস নিষিদ্ধ করা হয়েছে। ভালো বিষয় হলো, খাদ্য তালিকায় মাংসের পরিমাণ কমা স্বাস্থ্যকর। আর খারাপ বিষয় হলো আমরা একটি ধর্মান্ধ রাষ্ট্রের দিকে আরও এক ধাপ এগিয়ে গেলাম।”

ভিশাল দাদলানি লেখেন, “আমি নিরামিশভোজী, কাজেই গরুর মাংস নিষিদ্ধ হওয়ায় আমার কিছু যায় আসে না। কিন্তু যে দেশে শতকরা ৩০ ভাগ মানুষ গরুর মাংস খায়, সেখানে ব্যক্তি স্বাধীনতা গুরুত্বপূর্ণ।”

শেয়ার