নেতানিয়াহুর বক্তব্যে ক্ষুব্ধ মার্কিন ডেমোক্র্যাটরা

USA

সমাজের কথা ডেস্ক॥ ইরানের বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের কংগ্রেসে ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুর বক্তব্য নিয়ে ক্ষুব্ধ হয়েছেন ক্ষমতাসীন ডেমোক্র্যাট দলের আইনপ্রণেতারা। মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামাও নেতানিয়াহুর বক্তব্যে কঠোর প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন।
নেতানিয়াহু গত মঙ্গলবার মার্কিন কংগ্রেসের যৌথ অধিবেশনের ভাষণে ইরানের পরমাণু কর্মসূচি ইস্যুতে প্রেসিডেন্ট ওবামার নীতির তীব্র সমালোচনা করেন। আলোচনার মধ্য দিয়ে ইরানের সঙ্গে চুক্তির চেষ্টা করা দেশটিকে এ কর্মসূচি বন্ধ করানোর বদলে বরং তাদের জন্য বোমা তৈরির পথ আরো সুগম করবে বলে মন্তব্য করেন নেতানিয়াহু।

ওবামা তার এ বক্তব্য প্রত্যাখ্যান করে বলেছেন, নেতানিয়াহু কার্যকর কোনো বিকল্প প্রস্তাব দিতে পারেননি। তার বক্তব্যে ‘নতুন কিছু নেই’ বলেও উল্লেখ করেন ওবামা।

তিনি বলেন, “নেতানিয়াহু যে বিকল্প উল্লেখ করেছেন তা হল ‘কোনো চুক্তি নয়’। এমন হলে ইরান আবারো পারমাণবিক কর্মসূচি নিয়ে কাজ চালিয়ে যেতে থাকবে। এতে করে তারা কি করছে সেটিও আমরা জানতে পারব না, আর তারাও অবাধে কাজ চালিয়ে যাওয়ার সুযোগ পাবে।”

ওদিকে, ভাইস প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনসহ ঊর্ধ্বতন অনেক ডেমোক্র্যাটও নেতানিয়াহুর বক্তব্যের তীব্র সমালোচনা করেছেন। হাউজ মাইনোরিটি লিডার ন্যান্সি পেলোসি নেতানিয়াহুর বক্তব্যকে যুক্তরাষ্ট্রের গোয়েন্দা কার্যক্রমের জন্য অপমানকর বলে মন্তব্য করেছেন।

নেতানিয়াহুর ভাষণ বয়কট করেছেন কংগ্রেসের ৫০ জনেরও বেশি ডেমোক্র্যাট।ওবামা প্রশাসনের সঙ্গে পরামর্শ ছাড়াই নেতানিয়াহুকে কংগ্রেসে ভাষণ দেয়ার আমন্ত্রণ জানানোয় এসব আইনপ্রণেতা প্রতিনিধি পরিষদের স্পিকার জন বোয়েনারেরও সমালোচনা করেছেন।

নেতানিয়াহুর বক্তব্যকে ‘রাজনৈতিক নাট্য-মঞ্চ’ও আখ্যা দিয়েছেন ডেমেক্র্যাটদের অনেকেই। ইসরায়েলের আসন্ন নির্বাচনে দ্বিতীয় মেয়াদে নির্বাচিত হওয়ার জন্য নেতানিয়াহুর এ বক্তব্য ভূমিকা রাখবে বলে মন্তব্য করেছেন কেউ কেউ।

শেয়ার