‘সবচেয়ে ব্যয়বহুল শহর সিঙ্গাপুর’

singa
সমাজের কথা ডেস্ক॥ বিশ্বের সবচেয়ে ব্যয়বহুল শহর হিসেবে শীর্ষস্থান ধরে রেখেছে দক্ষিণপূর্ব এশিয়ার সিঙ্গাপুর।

সোমবার রাতে ইকোনোমিস্ট ইন্টেলিজেন্স ইউনিট (ইআইইউ) প্রকাশিত এক গবেষণা ফলাফলে এ তথ্য জানানো হয়েছে বলে বিবিসি জানিয়েছে।

প্রকাশিত ফলাফলে দেখা যায়, এক বছর ধরে বিশ্বের শীর্ষ ব্যয়বহুল শহরগুলোর অবস্থান অপরিবর্তিত রয়ে গেছে। প্রথমে সিঙ্গাপুর, এরপর প্যারিস, তারপর যথাক্রমে অসলো, জুরিখ ও সিডনি।

২০১৪ সালে টোকিও’কে সরিয়ে সিঙ্গাপুর সবচেয়ে ব্যয়বহুল শহর হিসেবে শীর্ষস্থান দখল করে। টোকিও ২০১৩ সালে বিশ্বের সবচেয়ে ব্যয়বহুল শহরের স্বীকৃতি পেয়েছিল। এবার টোকিও’র অবস্থান ১১তম।

নিউ ইয়র্ককে ভিত্তি ধরে বিশ্বের ১৩৩টি শহর পর্যালোচনা করে গবেষণাটি করেছে ইআইইউ। এতে খাদ্য মূল্য, পোশাক ও অন্যান্য নিত্যপ্রয়োজনীয় সেবার বিলসহ ১৬০টি সেবার ব্যয় পর্যালোচনা করা হয়েছে।

দৈনন্দিন মুদি পণ্যের মূল্য বিবেচনায় নিউ ইয়র্ক থেকে সিঙ্গাপুর ১১ শতাংশ বেশি ব্যয়বহুল। পোশাকের জন্য সবচেয়ে ব্যয়বহুল শহর সিউল। নিউ ইয়র্ক থেকে এখানে পোশাকে মূল্য ৫০ শতাংশ বেশি।

অপরদিকে সিঙ্গাপুরের জীবনযাত্রায় পরিবহন খরচ অত্যন্ত বেশি, নিউ ইয়র্কের তুলনায় প্রায় তিনগুণ।

গবেষণায় বিশ্বের সস্তা শহরেরও তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে। এই তালিকার শীর্ষ পাঁচ অবস্থানে দক্ষিণ এশিয়ার চারটি শহর আছে।

বিশ্বের সবচেয়ে কম ব্যয়বহুল শহর হিসেবে তালিকার শীর্ষে আছে পাকিস্তানের করাচি। এরপর আছে ভারতের ব্যাঙ্গালুরু। ভারতের আরো দুটি শহর শীর্ষ অবস্থানে থাকলেও তিন নাম্বারে আছে ভেনেজুয়েলার রাজধানী কারাকাস।

২০১৪ সালে কারাকাস সবচেয়ে ব্যয়বহুল শহরের তালিকায় ছয় নম্বরে থাকলেও এবার ১২৪তম হয়ে তৃতীয় সস্তা শহরের স্বীকৃতি পেয়েছে।

এরপর চতুর্থ অবস্থানে আছে ভারতের বাণিজ্যিক রাজধানী মুম্বাই এবং পঞ্চম স্থানে আছে দেশটির দক্ষিণাঞ্চলীয় শহর চেন্নাই। ২০১৪ সালে ভারতের এসব শহরগুলো বিশ্বের সবচেয়ে কম ব্যয়বহুল শহরগুলোর মধ্যে শীর্ষ অবস্থানে ছিল।

শেয়ার