বিনা খরচে দুই লাখ শ্রমিক নেবে কাতার

file1235

সমাজের কথা ডেস্ক॥
বিনা খরচে বাংলাদেশ থেকে বেসরকারিভাবে লক্ষাধিক শ্রমিক নেবে কাতার সরকার। ২০২২ সালে কাতারে অনুষ্ঠিতব্য বিশ্বকাপ ফুটবলের প্রস্তুতির জন্য তাদের এ সব শ্রমিক প্রয়োজন।

সোমবার দুপুরে রাজধানীর ইস্কাটনে প্রবাসীকল্যাণ ভবনে প্রবাসীকল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থানমন্ত্রী খন্দকার মোশাররফ হোসেন এ কথা জানিয়েছেন।

ফেব্রুয়ারির ২৩ থেকে ২৬ তারিখ পর্যন্ত প্রবাসীকল্যাণ মন্ত্রীর নেতৃত্বে বাংলাদেশের একটি উচ্চপর্যায়ের টিম কাতার সফর করেন।

মন্ত্রী জানান, চলতি বছরের প্রথম দুই মাসে কাতার সরকার ৫০ হাজার শ্রমিকের চাহিদাপত্র ও ভিসার অনুমোদন দিয়েছে। বাকি ১০ মাসে কমপক্ষে আরও দেড়লাখ ভিসা আসবে। দেশটিতে বছরে দুইলাখ কর্মী যেতে পারবেন।

মন্ত্রী বলেন জানান, এ সব শ্রমিকের কাতার যেতে কোনো খরচ লাগবে না। কর্মীদের কাতার যাওয়া, ভিসা ও অন্যান্য খরচ বহন করবে দেশটির জনশক্তি আমদানিকারকরা। তবে পাসপোর্ট ও অন্যান্য বাবদ ১৫ থেকে ২০ হাজার টাকা খরচ হবে বাংলাদেশি কর্মীদের।

জানা যায়, ২০২২ সালে ফুটবল বিশ্বকাপ অনুষ্ঠিত হবে কাতারে। এ উপলক্ষে নয়টি নতুন আন্তর্জাতিকমানের ব্যয়বহুল স্টেডিয়াম নির্মাণ করছে দেশটি। ছয়টি শহরকে নতুন করে গড়ে তোলা হবে। এতে ব্যয় হবে ১৩৪ বিলিয়ন ডলার। কাতারের আয়তন মাত্র ১১ হাজার ৫৭১ বর্গকিলোমিটার। জনসংখ্যা মাত্র ২১ লাখ।

দেশটিতে মোট জনসংখ্যার প্রায় অর্ধেক ১০ লাখ বিদেশি শ্রমিক কাজ করেন।

বিনা খরচে জনশক্তি রফতানিতে সম্প্রতি সৌদি আরবের সঙ্গে বাংলাদেশের যেমন চুক্তি হয়েছে, কাতারের সঙ্গে একই ধরনের চুক্তি হবে। বর্তমানে কাতার যেতে জনপ্রতি দুই থেকে তিন লাখ টাকা ব্যয় হচ্ছে।

শেয়ার