যৌবন ধরে রাখতে ওয়ারেন বাফেটের তত্ত্ব

warrenbuffett
সমাজের কথা ডেস্ক॥

ওয়ারেন বাফেট। বিশ্বের সবচেয়ে বড় এ বিনিয়োগকারীর প্রতিষ্ঠিত হওয়া নিয়ে যেমন প্রশ্নের শেষ নেই, তেমনি ৮৪ বছর বয়সী এ ব্যক্তি কীভাবে প্রতিনিয়ত ঘুম থেকে ওঠে অসীম মনোবল আর অদম্য শক্তি নিয়ে কাজকর্মে মনোনিবেশ করেন সে নিয়েও রয়েছে কৌতুহল। কৌতুহলীদের প্রতি বাফেটের উত্তর, ‘আসলে আমার চারভাগের একভাগ কোকা-কোলা’।

বাফেটের এ কথায় অনেকের মনে হতে পারে- তিনি তার সদ্যপ্রয়াত বন্ধু ও কোকা-কোলা কোম্পানির সাবেক প্রেসিডেন্ট ডন কিয়াফ’র সাম্প্রতিক মৃত্যু নিয়ে-দফতরে কারও সঙ্গে আলাপ করছেন।

বাফেট ব্যাখ্যা করলেন, ‘না, আমি যদি প্রতিদিন ২৭শ’ ক্যালরির খাবার খাই, তাহলে এর চারভাগের একভাগই কোকা-কোলা। প্রতিদিন আমি পাঁচবার (পাঁচ বোতল) কোকা-কোলা পান করি; আর প্রতিবারেই (প্রতি বোতল) ১২ আউন্স করে।’

১২ আউন্সের প্রতিটি কোকা-কোলা বোতলে ১৪০ ক্যালরি করে থাকে।

কোকা-কোলা কোম্পানির ১৬শ’ কোটি মার্কিন ডলারের সত্ত্বাধিকারী বার্কশায়ার হ্যাথাওয়ে বিআরকে’র মালিক বাফেট জানান, দিনে তিনবার এবং রাতে দু’বার করে এই ১২ আউন্সের কোকা-কোলা পান করেন তিনি।

বাফেটের সকাল বেলার নাস্তায়ও কোকা-কোলা থাকে। আর এটির সঙ্গে তিনি পটেটো স্টিকস খেতে খুব ভালোবাসেন।।

কিন্তু অনেক বেশি সুগার ও লবণযুক্ত এই কোকা-কোলা পান করে কীভাবে তিনি তারুণোচ্ছ্বল থাকেন-এমন প্রশ্নের জবাব অশীতিপর বাফেটের, ‘সবকিছুই আমি হিসাব করে খাই। অন্য খাবারের সঙ্গে মিলিয়ে কোকা-কোলা পানে আমি স্বাস্থ্য ঝুঁকি অনুভব করি না’।

শেয়ার