ফিলিপাইনে ২৪ ‘আবু সায়াফ’ বিদ্রোহী নিহত

ABU
সমাজের কথা ডেস্ক॥

ফিলিপাইনের দক্ষিণাঞ্চলে গত ৫ দিন ধরে চলা লড়াইয়ে অন্তত ২৪ আবু সায়াফ বিদ্রোহী নিহত হয়েছে বলে দাবি করেছে দেশটির সামরিক বাহিনী। পাশাপাশি অভিযানে দুই সেনা মারা যাওয়ার কথা জানিয়েছে তারা।

অভিযানে নেতৃত্বদানকারী ফিলিপিনো সেনাবাহিনীর কর্নেল অ্যালান অ্যারোহাদো বলেন, জোলো দ্বীপে শুক্রবার দুই ঘণ্টার লড়াইয়ে নিহত হয় আবু সায়াফের দশ সদস্য। মঙ্গলবার থেকে শুরু হওয়া সংঘর্ষে পৃথক পৃথকভাবে নিহত হয় আরও ১৪ বিদ্রোহী ও দুই সেনা।

জোলো দ্বীপের পাতিকুল শহরের নিকটবর্তী ঘন বনভূমি বেষ্টিত পার্বত্য এলাকায় এই লড়াই চলছে। ওই অঞ্চল বিদ্রোহী গোষ্ঠী আবু সায়াফের শক্ত ঘাঁটি হিসেবে পরিচিত।

আবু সায়াফের হাতে বর্তমানে সাতজন বিদেশি নাগরিক জিম্মি রয়েছে বলে জানিয়েছে ফিলিপিনো সামরিক বাহিনী।

ছয় মাস বন্দি রাখার পর গত বছরের অক্টোবরে এক জার্মান দম্পতিকে মুক্তি দেয় আবু সায়াফ। ৫৭ লাখ ডলারের বিনিময়ে তাদের মুক্তি দেয়া হয় বলে তখন দাবি করেছিলো সংগঠনটি।

গত শতাব্দীর নব্বইয়ের দশকে প্রতিষ্ঠা পাওয়ার পর থেকে পশ্চিমা নাগরিকদের অপহরণ করে মুক্তিপণ আদায়ের জন্য বিশ্বব্যাপী কুখ্যাতি অর্জন করে আবু সায়াফ। এছাড়া ফিলিপাইনের ইতিহাসে সবচেয়ে মারাত্মক সন্ত্রাসী হামলা চালানোর জন্যও অভিযুক্ত তারা। ২০০৪ সালে ম্যানিলা উপসাগরে একটি জাহাজে বোমা হামলায় নিহত হয় শতাধিক মানুষ। এই হামলার পেছনে আবু সায়াফ রয়েছে বলে ধারণা ফিলিপিনো কর্তৃপক্ষের।

শেয়ার