একদিন পর যশোর ইন্সটিটিউটের নির্বাচন ॥ ভোটারদের সাক্ষাত পেতে বাসাসহ অফিস ও কর্মস্থলে ছুটছেন প্রার্থীরা

jessore  public libraryjessore in
সালমান হাসান॥
শেষ মুহূর্তের প্রচারণায় ব্যস্ত সময় পার করছেন যশোর ইন্সটিটিউট পরিচালনা পর্ষদ নির্বাচনে প্রার্থীরা। বিভিন্ন দলে বিভক্ত হয়ে প্রার্থীরা ঘুরছেন ভোটারদের দ্বারে দ্বারে। ভোটারদের সাক্ষাত পেতে বাড়ি থেকে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে এবং না পেলে কর্মস্থলে যাচ্ছেন প্রার্থীরা। শহর থেকে শহরতলীতে দেখা যাচ্ছে এ দৃশ্য।
২৭ ফেব্রুয়ারি যশোর ইন্সটিটিউটের নির্বাচন। মাঝখানে মাত্র একদিন বাকি থাকায় শতাব্দী প্রবীণ এ সামাজিক, সাংস্কৃতিক প্রতিষ্ঠানের সদস্যদের কদর বেড়েছে বহুগুণে। প্রার্থীদের পাশাপাশি তাদের শুভান্যুধায়ীরাও ভোটারদের কাছে ভোটের জন্য ধর্না দিচ্ছেন। নির্বাচনী এ প্রচারাভিযান চলছে কাক ডাকা ভোর থেকে গভীর রাত পর্যন্ত। এদিকে, নির্বাচনে জয়লাভ করে নিজেদের ইমেজ অক্ষুণœ রাখতে প্রাণপনে চেষ্টা চালাচ্ছেন প্রার্থীরা। দীর্ঘদিন একসাথে একই প্যানেলে থেকে জয়ী হওয়া ব্যক্তিরা তাই তাদের দীর্ঘদিনের মিত্রদের নামে বিভিন্ন অভিযোগের তীর ছুড়তেও পিছপা হচ্ছেন না। একে অপরের বিরুদ্ধে চলছে বিভিন্ন অনিয়ম, স্বেচ্ছাচারিতার প্রচার প্রপাগান্ডা। যা সাধারণ ভোটার ভালোভাবে দেখছেন না বলে অনেক ভোটার জানিয়েছেন।
অন্যদিকে, প্যানেল জয়ী হয়ে কারা গঠন করবেন নতুন পরিচালনা পরিষদ এ নিয়ে ভোটারদের মধ্যে জল্পনা কল্পনা হচ্ছে। তবে ভোটারদের অনেকে বলছে এবার নতুন প্রার্থীদের বিজয়ী হওয়ার সম্ভাবনা বেশি। সেক্ষেত্রে হেভি ওয়েট অনেক প্রার্থীর ভরাডুবির আশঙ্কা রয়েছে।
অপরদিকে, সামাজিক ও ঐতিহ্যবাহী ইন্সটিটিউটের নির্বাচনে এবার বিকল্প প্যানেল অভিহিত করে সরকারি ডাকে বেনামি উড়ো চিঠি ছাড়া হয়েছে। এ চিঠিতে চুড়ি, হিটলার ও নিক্সন মুক্ত যশোর ইন্সটিটিউট গড়ার ডাক দেওয়া হয়েছে। উড়ো চিঠিতে সংস্কার ও উন্নয়ন সমিতির ১২ জন এবং পরিবর্তন ও উন্নয়ন সমিতির ৮ জন প্রার্থীকে ভোট দিয়ে নির্বাচিত করতে উদ্বুদ্ধ করা হয়েছে।
এদিকে, আসন্ন নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হাবিবুর রহমান রুবেল অনেক ভোটারদের পছন্দের তালিকায় রয়েছেন বলে জানা গেছে। তরুণ প্রার্থী হিসেবে তাকে সুযোগ দেয়ার কথা ঘুরে ফিরে শোনা যাচ্ছে ভোটারদের মুখে মুখে। সদালাপী তরুণ রুবেল ইতিমধ্যে মন জয় করে নিয়েছেন ভোটারদের।

শেয়ার