রোদ ত্বকের ক্ষতি করে কয়েকঘণ্টা পরও

damage skin

সমাজের কথা ডেস্ক॥ রোদ থেকে ফেরার কয়েক ঘণ্টা পরও সূর্যের অতিবেগুনী রশ্মি (ইউভি রশ্মি) মানুষের ত্বকের ক্ষতি করতে থাকে এবং এর ফলে বাড়তে থাকে ক্যান্সারের ঝুঁকি। নতুন এক গবেষণায় এ তথ্য উঠে এসেছে।
যুক্তরাষ্ট্রের ইয়েল বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজ্ঞানীদের মতে, খুব সম্ভবত মেলানিন ত্বকের এ ক্ষতির জন্য দায়ী। ত্বকের ক্ষতি থেকে রক্ষা পেতে আরো ভাল সানস্ক্রিনের প্রয়োজন বলে মনে করেন বিজ্ঞানীরা।

ইউভি রশ্মি মানুষের ত্বকের কোষগুলোর নষ্ট করে ফেলে এবং এর ফলে ডিএনএ’তেও পরিবর্তন ঘটতে পারে।

মেলানিন ত্বকের পেছনে থাকে এবং শরীর মেলানিনের মাধ্যমে সূর্যের অতিবেগুনী রশ্মি থেকে নিজেকে রক্ষা করে। মেলানিন অতিবেগুনী রশ্মি শুষে নেয়। কিন্তু বিজ্ঞানীরা এতদিন জানতেন না মেলানিনের শুষে নেয়া এই শক্তির পরে কি হয়।

ইয়েল বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজ্ঞানীরা দেখান, মেলানিনে জমা হওয়া শক্তি রাসায়নিক বিক্রিয়ার বেশ কয়েকটি ধাপ পেরিয়ে আরো বড় শক্তিতে রূপান্তরিত হয়। প্রধান গবেষক অধ্যাপক ডগলাস ব্রাশ বিবিসি’কে বলেন, “এটি অনেকটা জোনাকির আলো দেয়ার মতো।”

গবেষণাগারে দেখা গেছে, রোদ থেকে (অতিবেগুনী রশ্মি থেকে) সরে আসার পরও প্রায় চার ঘণ্টা ধরে ত্বকের ক্ষতি হয়।

অধ্যাপক ব্রাশ বলেন, “অর্ধেক বা তারও বেশি ক্ষেত্রে দেখা যায় ব্যক্তি যখন বীচে থাকে তখন তার ডিএনএ’র ক্ষতি হওয়া শুরু হয় না। বরং সে যখন গাড়িতে করে বাড়ি ফেরে তখন এটা শুরু হয়।”

গবেষকরা আশা করছেন, তারা এমন একধরনের সানস্ক্রিন আবিষ্কার করতে সক্ষম হবেন যেটা স্বাভাবিক সুরক্ষা দেয়ার পাশাপাশি মেলানিন থেকে শক্তি শুষে নেয়া আটকাবে।

শেয়ার