মায়ানমারে সংঘর্ষে দু’সপ্তাহে নিহত ১৩০

myanmar
সমাজের কথা ডেস্ক॥ মায়ানমারের উত্তর-পূর্বাঞ্চলের চীন সীমান্তে সেনাবাহিনীর অভিযানের পর বিদ্রোহীদের সঙ্গে সংঘর্ষে গত দু সপ্তাহে অন্তত ১৩০ জন নিহত হয়েছে। আহত হয়েছে শতাধিক সেনাসহ অসংখ্য মানুষ।

শনিবার (২১ ফেব্রুয়ারি) প্রথমবারের মতো সংবাদমাধ্যমে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে দেশটির প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র লেফটেন্যান্ট জেনারেল মিয়া তুন ও এ কথা জানান।

গত ৯ ফেব্রুয়ারি থেকে সংঘর্ষ শুরু হওয়ার পর নিহত এই সোয়া শতাধিক লোকের মধ্যে ৬১ জন সেনা ও পুলিশ সদস্য রয়েছেন বলে জানান তিনি।

তবে, সীমান্ত এলাকায় শান্তি পুনঃপ্রতিষ্ঠা না হওয়া পর্যন্ত এই সংখ্যা বাড়তে পারে বলেও জানান লে. জে. মিয়া তুন।

অবশ্য তিনি হত্যাকা-ে সরকারি বাহিনীর সংশি¬ষ্টতার অভিযোগ অস্বীকার করে দাবি করেন, সেনাবাহিনী শুধু বিদ্রোহীদের হামলা প্রতিরোধ করছে। এছাড়া, এখানে স্থিতিশীলতা না ফেরানো পর্যন্ত তারা পিছু হটবেন না।

যদিও সেখানে রেডক্রসহ বেসামরিক যানবাহনে হামলার অভিযোগ অস্বীকার করেছে কোকাঙ অঞ্চলের বিদ্রোহীরাও।

উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় শান রাজ্যের কোকাঙে সংঘর্ষ সম্প্রতি আরও ব্যাপক আকার ধারণ করেছে। দু’পক্ষের সংঘর্ষের জেরে এখন পর্যন্ত প্রায় ৩০ হাজার মায়ানমারের নাগরিক সীমান্ত অতিক্রম করে চীনে ঢুকে পড়েছে।

শেয়ার