শহীদ দিবসের প্রস্তুতি॥ শ্রদ্ধাঞ্জলির উপকরণ তৈরিতে ব্যস্ত কারিগররা

sroddha
পলাশ বিশ্বাস॥
মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসকে সামনে রেখে ফুলের ডালি তৈরিতে ব্যস্ত সময় পার করছেন যশোরের ফুল ব্যবসায়ীরা। জেলার গদখালী থেকে ফুল দিয়ে তারা এ শ্রদ্ধাঞ্জলির উপকরণ তৈরি করেছেন।
আজ রাত ১২.০১ মিনিট থেকে শুরু হবে মহান ভাষা আন্দোলনের শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন। যশোর সরকারি এমএম কলেজে অবস্থিত যশোর কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারসহ বিভিন্ন শহীদ মিনারে রাজনীতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক ব্যক্তিরা ফুলের ডালি নিয়ে শহীদদের শ্রদ্ধা জানাবেন। আর সেই ফুলের ডালি তৈরি করতে রাশি রাশি ফুল বাঁশের চাটা আর শোলায় তৈরি হচ্ছে ছোট বড় ও মাঝারী আকারের শ্রদ্ধাঞ্জলির উপকরণ। এজন্য ফুল বিক্রয়ের তেমন আগ্রহ নেই দোকানদারদের। দড়াটানার মাধবী ফুল ঘরের সত্ত্বাধিকারী হাফিজুর রহমান জানান, দেশের মধ্যে ফুল উৎপাদনে বিখ্যাত যশোরের গদখালী তাই ফুলের কোন কমতি নেই। এক ফেব্রুয়ারি মাসেই বসন্ত উৎসব, বিশ্ব ভালোবাসা দিবস এবং শহীদ দিবস হওয়ায় ফুলের চাহিদা একটু বেশি। তবে দাম আগের মতই আছে।
জানা যায়, যশোরে যানবহন স্বাভাবিকভাবে চলাচল করায় হরতাল অবরোধে ফুল আনা নেওয়ায় তেমন কোন সমস্যা হচ্ছে না। আগের থেকে এবারে একটু বেশি কাজ পাচ্ছেন তারা। দড়াটানার মালঞ্চ ফুল ঘরসহ শহরের দোকানগুলো স্কুল, কলেজ, রাজনৈতিক দল ও তাদের অঙ্গ সংগঠনের পক্ষে ফুলের ডালি তৈরির অর্ডার পাচ্ছে। সেজন্য তারা ৩/৪ দিন আগে থেকেই শুরু করেছে শ্রদ্ধাঞ্জলি’র উপকরণ তৈরি ও সংরক্ষণ। যা সর্বোচ্চ এক হাজার ৫শ’ টাকা থেকে সর্বনি¤œ ৪শ’ টাকা দামে বিক্রি হবে। সেই সাথে যশোরের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার ঘিরে তৈরি হচ্ছে সাজসজ্জা ও নিরাপত্তাসহ বিভিন্ন প্রস্তুতি।

শেয়ার