সংলাপ সম্ভব নয়, ইইউকে আওয়ামী লীগ

eu aowa
সমাজের কথা ডেস্ক॥ নির্দলীয় সরকারের অধীনে মধ্যবর্তী নির্বাচনের দাবিতে বিএনপি সংলাপ চাইলেও চলমান নাশকতা বন্ধ না হলে তাদের সঙ্গে কোনো আলোচনা হবে না বলে ইউরোপের সফররত প্রতিনিধি দলকে জানিয়ে দিয়েছে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ।
ইউরোপীয় পার্লামেন্টের প্রতিনিধি দলটির সঙ্গে বৃহস্পতিবার বিকালে বৈঠকে বসেন ক্ষমতাসীন দলের নেতারা। ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভানেত্রীর রাজনৈতিক কার্যালয়ে এই বৈঠক হয়।
বৈঠকের পর প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা গওহর রিজভী সাংবাদিকদের বলেন, “নির্বাচনের সময় আসলে তার আগে কথা বলা যাবে। নির্বাচন সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য নির্বাচন কমিশনকে আরও শক্তিশালী করাসহ নতুন নিয়ম হতে পারে। তবে তা অবশ্যই হতে হবে ডেমোক্রেটিক ফ্রেমওয়ার্কের মধ্যে।
“আর চলমান সন্ত্রাস-নাশকতা বন্ধ না করলে কোনো সংলাপ হবে না।”
দশম সংসদ নির্বাচন বর্জনকারী বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০ দল মধ্যবর্তী নির্বাচনের দাবিতে গত ৫ জানুয়ারি লাগাতার অবরোধ ডেকেছে, যাতে নাশকতায় এই পর্যন্ত প্রায় একশ মানুষ মারা গেছেন।
অবরোধ-হরতালে নাশকতার জন্য বিএনপি জোট তথা সরাসরি খালেদা জিয়াকে দায়ী করে তার সঙ্গে আলোচনার সম্ভাবনা নাকচ করে আসছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তার দল ইউরোপীয় পার্লামেন্টের প্রতিনিধি দলকেও তাই জানাল।
বৈঠকে আওয়ামী লীগের প্রতিনিধি দলে গওহর রিজভীর সঙ্গে ছিলেন মসিউর রহমান, এইচ টি ইমাম, এম জমির, সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম, দীপু মনি, ফারুক খান, আবদুস সোজহান গোলাপ ও অসীম কুমার উকিল।
ইউরোপীয় পার্লামেন্টের মানবাধিকার বিষয়ক উপকমিটির ভাইস প্রেসিডেন্ট ক্রিশ্চিয়ান দান প্রেদা নেতৃত্বাধীন প্রতিনিধি দলের কেউ কোনো কথা সাংবাদিকদের বলেননি।
বিএনপি-জামায়াত জোটের লাগাতার আন্দোলনের মধ্যে সোমবার ঢাকায় আসা এই প্রতিনিধি দলটি মঙ্গলবার বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সঙ্গে বৈঠক করে। বুধবার পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলমের সঙ্গে বৈঠক করে তারা।

শেয়ার