খুনের দায় খালেদা এড়াতে পারবেন না: শেখ হাসিনা

PM1

সমাজের কথা ডেস্ক॥ অবরোধে পুড়িয়ে মানুষ হত্যার জন্য বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে দায়ী করে তার বিচার করার কথা জোর দিয়ে বলেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বুধবার তিনি সংসদে বলেছেন, “খুনের দায় উনি (খালেদা জিয়া) এড়াতে পারেন না। এত হত্যা বিনা বিচারে যেতে পারে না। মানুষ হত্যা বরদাশত করা হবে না। মামলা হয়েছে। আইন তার নিজের গতিতে চলবে।”

নির্দলীয় সরকারের অধীনে মধ্যবর্তী নির্বাচনের দাবিতে বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০ দলের লাগাতার অবরোধ-হরতালে নাশকতায় প্রায় একশ মানুষ নিহত হয়েছেন, যার বেশিরভাগই মারা গেছেন অগ্নিদগ্ধ হয়ে।

পেট্রোল বোমা মেরে গাড়িতে আগুন ধরিয়ে হত্যার জন্য ইতোমধ্যে বিভিন্ন স্থানে মামলায় অবরোধ আহ্বানকারী খালেদা জিয়াকে হুকুমের আসামি করা হয়েছে।

আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা বলেন, “উনি (খালেদা জিয়া) মানুষ হত্যায় বিভোর। মানুষ হত্যার মোহে উনি এত মোহিত যে, নিজের ছেলের কবর জিয়ারত করতে যায়নি। উনি খুন-খারাপি চালিয়েই যাচ্ছেন।”

চলমান নাশকতার বিচার সন্ত্রাস দমন আইন, দ্রুত বিচার আইনসহ যে সব আইন বিদ্যমান, তাতেই সম্ভব বলে মত দেন সরকার প্রধান।

তিনি বলেন, বিদ্যমান এসব আইনেই পেট্রোল বোমা হামলাকারী এবং নির্দেশদাতাদের বিরুদ্ধে সর্বোচ্চ শাস্তি সম্ভব।

“অনেকে ধরা পড়েছে, অনেকে স্বীকারোক্তি দিয়েছে, কারা নির্দেশ দিয়েছে। এলক্ষ্যেই মামলা হয়েছে। যে যা বলুক না কেন, যারা এসব ঘটনা ঘটাচ্ছে, তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।”

বিএনপি জোটের অবরোধ-হরতালের মধ্যে পেট্রোল বোমাসহ ২০১ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে সংসদে জানান প্রধানমন্ত্রী।

তিনি বলেন, আইএসের মতো আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসী গোষ্ঠির সঙ্গে হাত মিলিয়ে বিএনপি চেয়ারপারসন মানুষকে পুড়িয়ে মারছে।

“এর সঙ্গে উনার কিছু ক্যাডার বাহিনী এবং জামাত-শিবির জড়িত।”

জামায়াত, বিএনপি আর হিযবুত তাহরীর একই সূত্রে বাঁধা বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ না দেওয়া খালেদা জিয়ার ‘ভুল সিদ্ধান্ত’ ছিল বলে আবার মন্তব্য করেন আওয়ামী লীগ সভানেত্রী।

“উনার ভুল সিদ্ধান্তের খেসারত দিতে হচ্ছে জাতিকে।… উনার কার্যকলাপে আগামীতে বিএনপির নাম মানুষ মুখে নেবে না। থু থু দেবে।”

শেয়ার