বিজ্ঞপ্তিতেই বন্দি বিএনপির রাজনীতি

Salauddin

সমাজের কথা ডেস্ক॥

প্রেস রিলিজেই বন্দি হয়ে পড়েছে বিএনপি’র রাজনীতি। প্রতিদিনই অজ্ঞাত স্থান থেকে বিবৃতি আসছে দলটির স্বেচ্ছায় আত্মগোপনে থাকা নেতাদের। ভাবটা এমন যেতো আন্ডারগ্রাউন্ড পার্টিরই নেতা তারা।

এমন ভাব দেখে তাদের নামের সঙ্গে ওসামা বিন লাদেনের নাম জুড়ে দেওয়ার চলও ইদানিং লক্ষ্য করা যাচ্ছে বিভিন্ন আড্ডার রাজনৈতিক আলোচনায়।

যেসব নেতার নামে সংবাদমাধ্যমে বিজ্ঞপ্তি পাঠানো হচ্ছে, সাংবাদিকদের চর্মচক্ষু তাদের চেহারাটিও দেখার সুযোগ পাচ্ছেন না বিগত কিছুদিন ধরে। নিজেদের সব কর্মসূচি ও মনোভাব এখন কেবল বিবৃতি-বিজ্ঞপ্তিতেই প্রকাশ করছেন তারা।

৩ জানুয়ারি বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া গুলশান-কার্যালয়ে বসবাস শুরুর পর থেকেই বাড়ে এই বিজ্ঞপ্তি-নির্ভরতা।

এর একেকটিতে একেকজনের নাম ও স্বাক্ষর জুড়ে দেওয়া হচ্ছে। আর ফাঁকিটাও সেখানেই। কারণ পরবর্তীতে কোন সমস্যায় সহজেই অস্বীকার করতে পারবেন এসবের মালিকানা।

গুলশানে কয়েকদিন ইন্টারনেট, ফোন-নেটওয়ার্ক না থাকায় সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে যোগাযোগে ব্যাঘাত পান অবস্থানকারীরা। বর্তমানে সেই পরিস্থিতি অনেকটা ঠিক হয়ে এসেছে।

তাই আগের মতোই খালেদা জিয়ার সঙ্গে কারা সাক্ষাতে আসছেন, সেসব ছবি সম্বলিত বিজ্ঞপ্তি আসছে নিয়মিত। যেহেতু মিডিয়ার ক্যামেরা ভেতরে প্রবেশে অনুমতি পাচ্ছে না, তাই এসব ছবিতেই খালেদাকে দেখছেন আগ্রহীরা।

বিজ্ঞপ্তিতেই আসছে হরতালের ঘোষণা, পালিতও হচ্ছে, মানুষ পুড়ছে, গাড়ি পুড়ছে। তবে প্রেরকদের বিরুদ্ধে আইনের আশ্রয় নেওয়া হলে প্রমাণের সুযোগ না রাখার চেষ্টা থাকছে সব বিজ্ঞপ্তিতে। বিষয়টি যেন ‘সাপও মরলো, লাঠিও ভাঙলো না।’

সন্দেহের সুযোগ তৈরির চেষ্টা রাখা হচ্ছে যে, এসব বিজ্ঞপ্তি আদৌ বিএনপি’রই পাঠানো কিনা।

একটি বিষয় লক্ষ্য করা গেছে, কোন কোন বিজ্ঞপ্তি চরম উস্কানিমূলক বক্তব্য সমেত আসছে।

শেয়ার