পরিবারের অসম্মতিতে ভালোবাসা দিবসে বিয়ে ॥ মহেশপুরে মেয়েপক্ষের হামলায় ছেলেপক্ষের ৫ জন আহত

bia protiki
নিজস্ব প্রতিবেদক॥ বিশ্ব ভালোবাসা দিবসে এক প্রেমিক জুটি পিতা-মাতার অসম্মতিতে বিয়ে করার জের ধরে দুই পরিবারের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এতে বরপক্ষের মহিলাসহ পাঁচজন জখম হয়েছে। শনিবার ভালোবাসা দিবসে (জিরো আওয়ারে) রাত ১২টায় ঝিনাইদহের মহেশপুর উপজেলার পূর্বদাড়িয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।
আহতরা হচ্ছে উপজেলার পূর্বদাড়িয়া গ্রামের মৃত মোস্তফা আলী মোড়লের ছেলে বজলুর রহমান মোড়ল (৩৮), তার স্ত্রী মঞ্জুআরা বেগম (৩১), ফজলুর রহমান মোড়লের স্ত্রী মমিরন বেগম (৪৫), আব্দুল গফুর রহমানের স্ত্রী বেগম আর্জিনা (৫৫) ও সলেমান মোড়লের ছেলে নুর আলম (৩৫)। আহতদের মধ্যে বজলুর রহমান মোড়ল তার স্ত্রী মঞ্জুআরা ও তাই ভাই নুর আলম মোড়লকে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে ও অন্যদের মহেশপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।
আহত মঞ্জুআরা জানান, তার ছেলে আনোয়ার হোসেন মোড়ল ও একই গ্রামের আব্দুল মান্নানের মেয়ে ফাতেমা সুলতানা গত তিনমাস ধরে ঢাকায় চাকরি করার সুবাদে ঢাকায় থাকত। পরে শুক্রবার তারা একসাথে ঢাকা থেকে গ্রামে আসে। তারা বিশ্ব ভালোবাসা দিবসটি স্মরণীয় করে রাখতে রাত ১২টায় পরিবারকে না জানিয়ে নিজেরা বিয়ে করে। বিষয়টি দুই পরিবার জানতে পারলে ছেলের পরিবার বিয়ে মেনে নেয়। কিন্তু মেয়ের পরিবার এই বিয়ে মেনে নেয়নি। এক পর্যায়ে মেয়ের পরিবারের সদস্যরা ক্ষিপ্ত হয়ে লোকজন নিয়ে ছেলে পক্ষের বাড়িতে হামলা চালায়। এতে ছেলে পক্ষের ৫ জন জখম হয়। প্রতিবেশীরা আহতদের উদ্ধার করে মহেশপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। সেখানে বজলুর রহমান, মঞ্জুআরা ও ভাই নুর আলমের শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের উন্নত চিকিৎসার জন্য যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে প্রেরণ করে।

শেয়ার