ইয়েমেনে শিয়া-সুন্নি সংঘর্ষে নিহত ২৬

Yemen
সমাজের কথা ডেস্ক॥ শিয়া মুসলিম হুথি আন্দোলনকারীদের ক্ষমতা দখলের প্রতিবাদে ইয়েমেনে অনেকগুলো শহরে লাখো মানুষ প্রতিবাদ মিছিল করেছে।

শনিবারের এই পরিস্থিতিতেই দেশটির দক্ষিণাঞ্চলীয় পার্বত্যাঞ্চলে হাউথিদের সঙ্গে সুন্নিদের সংঘর্ষে ২৬ জন নিহত হয়েছেন বলে নিরাপত্তা কর্মকর্তারা জানিয়েছেন।

হাউথিরা ক্ষমতা গ্রহণের পর এক সপ্তাহেরও কম সময়ের মধ্যে তাদের বিরুদ্ধে এ নিয়ে দ্বিতীয় দিনের মতো প্রতিবাদ-বিক্ষোভ হল। নিরাপত্তা শঙ্কায় ইতোমধ্যেই দেশটি থেকে পশ্চিমা ও আরব দেশগুলো তাদের দূতাবাস গুটিয়ে নিয়েছে।

দেশটির ইব্ব শহরে প্রতিবাদকারীদের লক্ষ্য করে সশস্ত্র হাউথিরা গুলিবর্ষণ করলে চারজন আহত হন বলে হাসপাতাল সূত্রগুলো জানিয়েছে।

আন্দোলকারীরা জানিয়েছেন, দুই সপ্তাহ আগে রাজধানী সানায় হাউথি-বিরোধী বিক্ষোভ মিছিল থেকে সুন্নি নেতা সালেহ আল-বশিরি’কে ধরে নিয়ে যায় হাউথি বন্দুকধারীরা। বৃহস্পতিবার বশিরিকে মুক্তি দিয়ে একটি হাসপাতালের ভর্তি করার পর তার মৃত্যু হয়।

বশিরির শরীরে নির্যাতনের চিহ্ন ছিল বলে অভিযোগ করেছেন সুন্নি প্রতিবাদকারীরা। বশিরির মৃত্যুর প্রতিবাদে তারা মিছিল বের করেছিলেন বলে জানিয়েছেন। এ বিষয়ে হাউথিদের পক্ষ থেকে তাৎক্ষণিকভাবে কোনো মন্তব্য পাওয়া যায়নি।

ওদিকে একইদিন দক্ষিণাঞ্চলীয় পার্বত্য প্রদেশ আল-বাইদায়, হাউথি যোদ্ধাদের সঙ্গে সুন্নি মুসলিম ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠি ও আল কায়েদা জঙ্গিদের তীব্র লড়াই হয়েছে। এতে ১৬ হাউথি যোদ্ধা ও ১০ সুন্নি নৃগোষ্ঠির সদস্য ও জঙ্গি নিহত হয়েছেন।

হাউথিরা আনুষ্ঠানিকভাবে রাজধানী সানার নিয়ন্ত্রণ গ্রহণ করার পর এখন দেশটির দক্ষিণাঞ্চলের দিকে অগ্রসর হচ্ছে। এ অবস্থায় ইয়েমেনের রাষ্ট্র ব্যবস্থা প্রায় অকার্যকর হয়ে পড়েছে।

নিরাপত্তা পরিস্থিতি বিবেচনায় যুক্তরাষ্ট্র, পশ্চিম ইউরোপীয় দেশগুলো, সৌদি আরব, সংযুক্ত আরব আমিরাত ও তুরস্ক দেশটি থেকে নিজেদের দূতাবাস গুটিয়ে নিয়ে কর্মীদের সরিয়ে নিয়েছে।

শেয়ার