প্রতিবাদ করুন, না পারলে মুখ বন্ধ রাখুন: জয়

Joy Facebook
সমাজের কথা ডেস্ক॥ আন্দোলনের নামে বিএনপি-জামায়াত জোটের ‘সন্ত্রাসের’ প্রতিবাদ করতে না পারলে মুখ বন্ধ রাখতে নাগরিক সমাজকে পরামর্শ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রীপুত্র সজীব ওয়াজেদ জয়।
গত এক মাসের বেশি সময় ধরে ২০ দলের অবরোধে নাশকতার মধ্যে ‘মধ্যপন্থা’ বলে কিছু নেই বলে ফেইসবুকে দেওয়া এক স্ট্যাটাসে মন্তব্য করে ওই পরামর্শ দেন তিনি।
চলমান পরিস্থিতির অবসানে দুই প্রধান রাজনৈতিক দলকে সংলাপের উদ্যোগ নিতে নাগরিক সমাজের আহ্বানের প্রেক্ষাপটে শুক্রবার বিকালে নিজের ফেইসবুক পাতায় এই স্ট্যাটাস তোলেন জয়।
তিনি বলেন, “আমি সবাইকে মনে করিয়ে দিতে চাই, ২০১৩ সালে আমরা অব্যাহত চেষ্টা করেছি বিএনপিকে সংলাপে আনতে। আমরা অন্তর্বর্তীকালীন সরকারে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়সহ তাদের যে কোনো মন্ত্রণালয় দিতে রাজি হয়েছিলাম।
“মাননীয় প্রধানমন্ত্রী নিজে খালেদা জিয়াকে ফোন দিয়েছিলেন। বিএনপি কি তখনও মানুষ পোড়ানো বন্ধ করেছিল? তারা করেনি। এইবারও মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ব্যক্তিগতভাবে খালেদা জিয়াকে দেখতে গিয়েছিলেন যখন তার পুত্র মারা যায়, কিন্তু তাকে ঢুকতেই দেওয়া হল না।”
এরপরও বিএনপির সঙ্গে আলোচনার প্রস্তাব গ্রহণযোগ্য হতে পারে না বলে মন্তব্য প্রধানমন্ত্রীর তথ্য প্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা জয়ের।
“যারা সংলাপের কথা বলে তাদের বলছি, আপনারা যদি আসলেই মানুষের কথা ভাবেন, তাহলে যান হাসপাতালের বার্ন ইউনিটগুলো দেখে আসুন। দেখুন, কিভাবে একটা ছোট শিশুকে জীবন্ত পুড়িয়ে দেওয়া হয়েছে।”
“তারপর প্রথমেই যারা দায়ী তাদের নাম বলুন এবং নিঃশর্তভাবে দাবি জানান- ‘খালেদা জিয়া, মানুষ জীবন্ত পুড়িয়ে মারা বন্ধ করুন। এতটুকুই। আর কিছু না।”
“যদি আপনাদের সেটা বলার সাহস না হয়, তবে মুখ বন্ধ রাখুন। সংলাপের দাবি করে আপনারা ওই সব সন্ত্রাসীদের আশা দিচ্ছেন যে তাদের অপকৌশল কাজে দিতেও পারে। উভয়পক্ষে দোষারোপ করে আপনারা মূলত তাদের দোষটিকে আড়াল করতে চাইছেন।”

শেয়ার