জেলা সম্মেলনকে জাতীয় সম্মেলন অভিহিত

aowami somme
নিজস্ব প্রতিবেদক॥ জেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন উপলক্ষে গতকাল যশোর ঈদগাহ ময়দান ছিল কানায় কানায় পূর্ণ। ভোর রাত থেকে নেতাকর্মীরা ব্যানার, ফেস্টুন আর প্লাকার্ড হাতে নিয়ে সম্মেলন স্থানে জড়ো হন। আর নারীরা এসেছিলেন লাল সবুজ রঙে নিজেদের রাঙিয়ে।
দীর্ঘ প্রায় এক যুগ পর অনুষ্ঠিত হওয়া গতকালের সম্মেলনকে ঘিরে গোটা জেলায় সাজ সাজ রব উঠে। আগের দিন রাত থেকে নেতাকর্মীদের সরব উপস্থিতিতে সম্মেলন স্থান যশোর ঈদগা ময়দানে উৎসবের আমেজ তৈরি হয়। আগত নেতাকর্মীরা স্ব-স্ব নেতার প্লাকার্ড হাতে নিয়ে ময়দানে হাজির হয়। সম্মেলনের শুরু থেকে তারা নিজ নেতা শাহীন চাকলাদারের নামে মুহুর্মুহু স্লোগানে ঈদগাহ ময়দান মুখরিত করে তোলেন। বিরামহীন এই স্লোগানে বক্তাদের বক্তব্যে ব্যাঘাত ঘটলেও তারা একে স্বাগত জানান। নেতাকর্মীদের এই সরব উপস্থিতি আর তাদের বিরামহীন স্লোগানে অভিভূত হয়ে প্রধান অতিথি প্রেসিডিয়াম সদস্য কাজী জাফর উল্লাহ ঈদগাহ ময়দানের সম্মেলনকে আওয়ামী লীগের জাতীয় সম্মেলনের ‘মতো’ হয়েছে বলে উল্লেখ করেন। এসময় তিনি এমন একটি সুশৃঙ্খল সম্মেলন আয়োজনের জন্য সাধারণ সম্পাদক শাহীন চাকলাদারসহ নেতৃবৃন্দকে ধন্যবাদ জানান।
এদিকে, বিভিন্ন সাজে আর রঙে নিজেকে রাঙিয়ে গতকালের সম্মেলনে হাজির হয়েছিলেন তৃণমূলের নেতাকর্মীরা। হাতে প্রিয় নেতা শাহীন চাকলাদারের ছবি সম্বলিত প্লাকার্ড, মাথায় লাল সবুজের জাতীয় পতাকায় সজ্জিত হয়ে আসেন অনেকে। আর নারীরা মোহনীয় সাজে ঈদগাহ ময়দানে হাজির হয়ে সম্মেলনকে সফল করে তোলেন। তারা রাস্তার দু’ধারে দাঁড়িয়ে আগত নেতাদের ফুল ছিটিয়ে ডিজিটাল জেলা যশোরে অভিনন্দন জানান।

শেয়ার