নভেম্বর থেকে অকার্যকর হচ্ছে হাতে লেখা পাসপোর্ট

passport
নিজস্ব প্রতিবেদক॥ আগামী নভেম্বর থেকে পুরোপুরি অকার্যকর হচ্ছে হাতে লেখা পাসপোর্ট। ফলে যারা হাতে লেখা পাসপোর্ট নিয়ে বিদেশ ভ্রমণ করেন তাদেরকে ডিজিটাল পাসপোর্ট সংগ্রহ করার সময় বেঁধে দিয়েছে সরকার। যশোর আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসের উপ-পরিচালক আবু নোমান মোহাম্মদ জাকির হোসেন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
জানা গেছে, ৫ বছর আগে থেকে মেশিন রিডেবল পাসপোর্ট তৈরির কাজ শুরু হয়েছে। কিন্তু সে সময়ে যারা হাতেলেখা পাসপোর্ট নিয়েছিল বিদেশ ভ্রমণের জন্য তাদের ওই পাসপোর্টও চালু রাখা হয়েছিল। অনেকের পাসপোর্টে ভিসার মেয়াদ ছিল। যারা বাংলাদেশসহ দু’দেশের নাগরিক বা যারা বিদেশে চাকরির সুবাদে থাকেন তাদের জন্য ওই সুবিধা রাখা হয়েছিল। মেশিন রিডেবল পাসপোর্ট চালুর ৫ বছর পর বর্তমানে সরকার হাতে লেখা ওই পাসপোর্ট গুলো আগামি নভেম্বর মাস থেকে অকার্যকর করার ঘোষণা দেয়া হয়েছে। গত ১৪ জানুয়ারি ঢাকাস্থ পাসপোর্ট অফিস সদর দপ্তর থেকে সারা দেশের আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসে এ সংক্রান্ত একটি আদেশ পৌছে দেয়া হয়েছে। ফলে আগামী নভেম্বর পর্যন্ত সময় দেয়া হয়েছে যাদের মেশিন রিডেবল পাসপোর্ট নেই বা যারা বিদেশে অবস্থান করছেন তাদেরকে অবিলম্বে মেশিন রিডেবল পাসপোর্ট তৈরি করে নেয়ার জন্য ওই ঘোষণায় উল্লেখ করা হয়েছে। নভেম্বরের পর থেকে আর হাতে লেখা পাসপোর্ট গ্রহণযোগ্য হবেনা বলে বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে জানিয়ে দেয়া হয়েছে।
যশোর আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসের উপ-পরিচালক আবু নোমান মোহাম্মদ জাকির হোসেন জানিয়েছেন, এখনো পর্যন্ত বিদেশ ভ্রমণকারীরা হাতে লেখা পাসপোর্ট ব্যবহার করেছেন। যারা অনেক দিন পর বিদেশ থেকে দেশে ফিরছেন তাদের মধ্যে কেউ কেউ হাতে লেখা পাসপোর্ট বহন করে নিয়ে আসছেন। ফলে আগামী সেপ্টেম্বর মাস পর্যন্ত হাতে লেখা ওই গুলো পাসপোর্ট গহণ করা হবে। এরপর নভেম্বর থেকে আর হাতে লেখা ওই পাসপোর্ট গ্রহণ করা হবে না।

শেয়ার