আইরিশ লজ্জায় শেষ হলো বাংলাদেশের প্রস্তুতি পর্ব

bd

সমাজের কথা ডেস্ক॥
আয়ারাল্যান্ডের কাছে শেষ প্রস্তুতি ম্যাচ হেরে শংকা নিয়েই বিশ্বকাপের মুল মিশন শুরু করতে হবে বাংলাদেশকে। সিডনিতে আইরিশদের কাছে চার উইকেটে হেরেছে টাইগারা। বাংলাদেশের দেওয়া ১৯০ রানের টার্গেটে পাঁচ ওভার বাকি থাকতেই জয়ের বন্দরে পৌঁছ যায় আয়ারল্যান্ড। এদিন মূলত ব্যাটিং ব্যর্থতার কারণেই ম্যাচটা হেরেছে বাংলাদেশ।

ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশের একমাত্র সৌম্য সরকার ছাড়া আর কেউ বুক চিতিয়ে লড়াই করতে পারেনি। সৌম্যের ৪৫ রান ছাড়া আর কোন ব্যাটসম্যান দলের প্রয়োজনের সময়ে হাল ধরতে পারেনি। যার ফলে ১৮৯ রানেরি অল আউট হয়ে যায় বাংলাদেশ।

প্রস্তুতি ম্যাচ বলেই হয়তো ইনফর্ম মাহমুদ্দুল¬াহকে বসিয়ে সাব্বির আহমেদ এবং নাসির হোসেন দুজনকেই একাদশে রাখা হয়েছিল। সাব্বিরের ব্যাট থেকে ২০ রান আসলেও নাসির হোসেন করেছেন মাত্র ছয় রান।

অন্যদিকে সাকিব আল হাসান আট রানে আউট হয়ে টিম ম্যানেজম্যান্টের দুঃশ্চিন্তা আরো বাড়িয়ে দিয়েছেন। মুশফিকুর রহিমের ২৬ রানের ইনিংসটি লম্বা করতে না পারায় শেষ পর্যন্ত ২০০ রানের নীচেই অল আউট হয়ে যায় বাংলাদেশ।

আধুনিক ক্রিকেটে এত কম স্কোর নিয়ে জয়ের আশা করাটা আকাশ কুসুম স্বপ্ন দেখার মতোই একটি ঘটনা। তবে বোলারদের চেষ্টার ত্রুটি ছিল না। এত কম রানের পুঁজি নিয়ে লড়াইটা করেছে বোলাররা।

৭৮ রানের মধ্যেই আইরিশদের চারটি উইকেট তুলে নিয়ে জয়ের আশা জাগিয়ে তুলেছিলেন বোলাররা। কিন্তু এড জয়েস এবং এন্ডি বালবিরাইনের ৫৯ রানের হিসেবে পার্টনারশিপ ম্যাচ থেকে বের করে দেয় বাংলাদশকে।

তবে তাইজুল ইসলাম ২৯ রানে দুটি উইকেট নিয়ে একাদশে খেলার দাবীটা আরো পাকাপোক্ত করেছেন।
এছাড়া সাকিব আল হাসান, তাসকিন আহমেদ, নাসির হোসেন এবং আল আমিন হোসেন একটি করে উইকেট নেন।

বাংলাদেশের গ্রুপ প্রতিপক্ষ স্কটল্যান্ডের কাছে আয়ারল্যান্ড ১৭৯ রানে হেরেছিল। মানসিক অস্বস্তি নিয়েই মাশরাফিদের বিশ্বকাপ মিশন শুরু করতে হবে। হ্যা কঠিন এক লড়াই অপেক্ষা করছে টাইগারদের জন্যে। দেখা যাক গুলি খাওয়া বাঘের মতো গর্জে উঠতে পারে কিনা বাংলাদেশ?

শেয়ার