সমাজের কথাকে জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক ইয়াকুব কবির টাইগারদের গেম চেঞ্জার সাকিব আল হাসান

sakib
আরমান সজল॥
আর তিনদিন পর পর্দা উঠবে বিশ্বকাপ ক্রিকেটের একাদশতম আসরের। ইতোমধ্যে বিশ্বকাপে অংশগ্রহণকারী দলগুলোর প্রস্তুতি ম্যাচ শুরু হয়েছে। ক্রিকেট ভক্তদের মধ্যে জল্পনা-কল্পনা চলছে কোন দেশ এবারের আসরে আসছে ব্যাট ও বল হাতে ঝড় তুলতে। তবে এরমধ্যেও গেম চেঞ্জার অর্থাৎ আচমকা যেকোন ম্যাচের রঙ বদলে দিতে পারেন এমন ক্রিকেটার বাছাই করছেন কেউ কেউ। বাংলাদেশের গেম চেঞ্জার হিসেবে সাকিব আল হাসানকে দেখছেন যশোর জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক ইয়াকুব কবির। তিনি গতকাল দৈনিক সমাজের কথার সাথে একান্ত আলাপকালে এমনটাই জানিয়েছেন।
আলাপচারিতার এক পর্যায়ে ইয়াকুব কবির বলেন, টাইগাররা সোমবার পাকিস্তানের বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচে যেভাবে লড়াই করে পরাজিত হয়েছে, তাকে পরাজিত না বলে জয় বলা যায়। আর তামিম চোট কাটিয়ে মাহমুদুল্লাহকে সাথে নিয়ে এদিন যেমন করে ব্যাট করেন তাতে বোঝা যাচ্ছে মাশরাফি বাহিনী এবারের আসরে বড় একটা অঘটন ঘটাবে। একইভাবে ১৫ জনের স্কোয়াডে জায়গা পাওয়া সমুদ্র সৈকতের ছোট ছেলে মমিনুল ও সৌম্য সরকার ব্যাটহাতে জ্বলে উঠতে পারে।
ইয়াকুব কবিরের মত ‘লাল সবুজের এবারের বিশ্বকাপের স্কোয়াডটি গত চারবারের চেয়ে শক্তিশালী। তাই এই দলটির কোয়ার্টার ফাইনাল খেলার সামর্থ রয়েছে। আর ভাগ্য ভাল থাকলে সেমিফাইনালেও ওঠে যেতে পারে।
বরেণ্য ক্রিকেট বিশেজ্ঞদের মতো ইয়াকুব কবিরও বিশ্বকাপে টাইগারদের গেম চেঞ্জার হিসেবে দেখছেন সাকিব আল হাসানকে। তিনি মনে করেন, এবারের আসরে অস্ট্রেলিয়ার গ্লেন ম্যাক্সওয়েল, বর্তমান বিশ্বকাপ চ্যাম্পিয়ন ভারতের মহেন্দ্র সিং ধোনি, পাকিস্তানের শহীদ আফ্রিদি, শ্রীলঙ্কার কুমার সাঙ্গাকারা, নিউজিল্যান্ডের রস টেলর, দক্ষিণ আফ্রিকার ফাফ ডু প্লেসিস, ইংল্যান্ডের ইয়ান মর্গান, ওয়েস্ট ইন্ডিজের ক্রিস গেইল, আফগানিস্তানের হামিদ হাসান, জিম্বাবুয়ের টেইলর, আরব আমিরাতের কামরান সাজ্জাদ, স্কটল্যান্ডের মাজিদ হক, আর আয়ারল্যান্ডের ক্যাভিন ব্রেন তাদের দ্যুতি ছড়াবেন।

শেয়ার