মাগুরায় ছাত্রীকে মারপিট, শিক্ষিকাকে শাস্তিমূলক বদলি

magura
সমাজের কথা ডেস্ক॥

মাগুরার শ্রীপুর উপজেলার সরদার কালিনগর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা জুবাইদা আক্তারকে শাস্তিমূলক বদলির নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

দ্বিতীয় শ্রেণির এক ছাত্রীকে বেধড়ক পিটিয়ে গুরুতর আহত করার অভিযোগে মঙ্গলবার বদলির এ নির্দেশ দেওয়া হয়।

শ্রীপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মঈনুল হাসান অভিযুক্ত শিক্ষিকা ও ভুক্তভোগী ছাত্রীর অভিভাবকের বক্তব্য শোনার পর তাকে অন্যত্র শাস্তিমূলক বদলির জন্য প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তাকে নির্দেশ দেন।

এদিকে, ছাত্রী পেটানোর প্রতিবাদ ও অভিযুক্ত শিক্ষিকার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে মঙ্গলবার সকালে এলাকায় বিক্ষোভ করেছে এলাকাবাসী। আহত ছাত্রী বর্তমানে শ্রীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসীন।

আহত ছাত্রীর মা রোকেয়া বেগম বাংলানিউজকে জানান, দীর্ঘদিন ধরে প্রধান শিক্ষিকা জুবাইদা আক্তার ছাত্রীদের দিয়ে নিজের বাড়ির ঘর ঝাড়ু ,ঘরমোছা, বাসন মাজা, কাপড়কাঁচাসহ অন্যান্য কাজ করিয়ে আসছিলেন।

সোমবার শারমিনকে বাড়িতে ডেকে ঘরঝাড়ু ও বাসন মাজতে বলেন তিনি। কিন্তু শারমিন এ কাজ করতে রাজি না হওয়ায় ক্ষিপ্ত হয়ে স্কুলে গিয়ে শারমিনকে পড়া ধরার অজুহাতে মারপিট করেন। এতে সে অসুস্থ হয়ে পড়ে। বিষয়টি জানাজানি হলে অভিভাবকরা শারমিনকে উদ্ধার করে শ্রীপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে।

এ ঘটনার উপযুক্ত বিচার চেয়ে ছাত্রীর বাবা মহিউদ্দিন শেখ লিখিতভাবে শ্রীপুর উপজেলা চেয়ারম্যান, নির্বাহী কর্মকর্তা ও উপজেলা শিক্ষা কর্মকতার কাছে অভিযোগ দায়ের করেন।

এ অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে শ্রীপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মঈনুল হাসান অভিযুক্ত শিক্ষিকা ও অভিভাবকদের বক্তব্য শোনার পর শিক্ষিকাকে শাস্তিমূলক বদলির জন্য উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তাকে নির্দেশ দেন।

এ ব্যাপারে উপজেলা শিক্ষা অফিসার অরুণ চন্দ্র ঢালী বাংলানিউজকে জানান, অভিযুক্ত প্রধান শিক্ষিকার বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তার কাছে প্রতিবেদন পাঠানো হয়েছে।

শেয়ার