মৃত্যুর কাছে হেরে গেলেন ট্রাক হেলপার শহীদুল

TRACK AGUN
সমাজের কথা ডেস্ক॥

রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে ৭ দিন মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ে হেরে গেলেন ট্রাক হেলপার শহীদুল ইসলাম (৩৮)।

সোমবার (০৯ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে দিকে তার মৃত্যু হয়।

গত ২ ফেব্রুয়ারি মহানগরীর নওদাপাড়া এলাকায় লিলি সিনেমা হলের সামনে অবরোধকারীদের ছুড়া পেট্রোল বোমায় দগ্ধ হয়েছিলেন তিনি। শহীদুল ইসলামের বাড়ি পবা উপজেলার মোল্লা ডাইংপাড়া এলাকায়।

রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেলর এ কে এম নাছির উদ্দিন বাংলানিউজকে এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

তিনি বলেন, চিকিৎসাধীন অবস্থায় সোমবার বিকাল ৫টায় শহীদুলের মৃত্যু হয়। পেট্রোল বোমায় তার শ্বাসনালী পুড়ে যাওয়ায় তাকে বাঁচানো সম্ভব হয়নি।

ওই ঘটনায় দগ্ধ হয়ে এখনও বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ওই ট্রাকের চালক পবা উপজেলার আলীগঞ্জ এলাকার সাইদুর রহমান। পেট্রোল বোমার আঘাতে সাইদুর রহমানের দুই হাত, মুখ ও পায়ের কিছু অংশ পুড়ে গেছে। তবে তারা আশঙ্কামুক্ত বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।

শেয়ার