মানবসৃষ্ট দুর্যোগ কাটিয়ে উঠব: শেখ হাসিনা

PM
সমাজের কথা ডেস্ক॥ বিএনপি জোটের অবরোধ এবং তাতে নাশকতাকে ‘মানবসৃষ্ট দুর্যোগ’ অভিহিত করে তা কাটিয়ে ওঠার কথা বলেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।
সোমবার বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে চার দিনব্যাপী ডিজিটাল ওয়ার্ল্ড এর উদ্বোধন অনুষ্ঠানে বক্তব্যে একথা বলেন তিনি।
বর্তমান রাজনৈতিক অস্থিরতার দিকে ইঙ্গিত করে শেখ হাসিনা বলেন, “গত এক মাসে কিছু মানুষের সৃষ্টি করা দুর্যোগের মধ্য দিয়ে আমরা যাচ্ছি। ইনশাল্লাহ এই দুর্যোগ আমরা কাটিয়ে উঠতে সক্ষম হব।
“বাংলাদেশের ভৌগলিক অবস্থা এমন, এখানে প্রাকৃতিক দুর্যোগও যেমন মোকাবেলা করতে হয়, তেমনি মনুষ্যসৃষ্ট দুর্যোগও মোকাবেলা করতে হয়।”
কারও নাম উল্লেখ না করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, “কারো আমি গিবত গাইতে চাই না। কারো কথা বলতে চাই না। যারা দেশের উন্নয়ন চোখে দেখেন না, চোখ থাকতেও যারা অন্ধ, যারা দেশকে উন্নয়নের পথ থেকে তুলে অন্ধকারে ঠেলে দিতে চান, দেশবাসী তাদের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলবে।
“আগুন দিয়ে মানুষ পুড়িয়ে মারা কোনো আন্দোলন হতে পারে না। এমন অমানবিক কাজ কোনো মানুষ করতে পারে, তা বিশ্বাস হয় না। যারা এমন করছে, তারা দেশের শত্রু, মানবতার শত্রু।”
উদ্বোধন অনুষ্ঠানে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়। তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলকও অনুষ্ঠানে ছিলেন।
বিজ্ঞান প্রযুক্তির জ্ঞান নিয়ে ভবিষ্যত প্রজন্ম দেশকে আরও সমৃদ্ধ করবে আশা প্রকাশ করে শেখ হাসিনা বলেন, ২০২১ সালে বাংলাদেশ হবে মধ্যম আয়ের দেশ। ২০৪১ সালে হবে দক্ষিণ এশিয়ার অন্যতম উন্নত দেশ।
তিনি বলেন, বাংলাদেশের জনগণের মেধার অভাব নেই। শুধু মেধা বিকাশের দরকার। বর্মান সরকার শুধু মেধা বিকাশের সুযোগ করে দিচ্ছে।
“আমরা চাই, প্রযুক্তি ব্যবহার ব্যাপকহারে বিস্তার লাভ করুক। ধনী-গরিব, শিক্ষিত-অশিক্ষিত নির্বিশেষে প্রযুক্তি বিভেদ মুক্ত দেশ গড়ে তোলাই আমাদের লক্ষ্য।”
সরকার ই-গভর্নেন্স অনেকটাই বাস্তবায়ন করে ফেলেছে বলেও প্রধানমন্ত্রী জানান।

শেয়ার